মোদির ভোট-সফরের 24 ঘন্টা আগে দান্তেওয়াড়ায় মাও হানা, হত 5

এসবিবি : প্রধানমন্ত্রীর সফরের 24 ঘন্টা আগে ছত্তিসগড়ের দান্তেওয়াড়ায় ফের মাওবাদী হামলা। মাওবাদীদের ল্যান্ড মাইনে উড়ে গেল সিআইএসএফ-এর বাস। ঘটনায় 5 জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে 1 সিআইএসএফ জওয়ান ও এক পুলিসকর্মী রয়েছেন।মারাত্মক জখম আরও 2 সিআইএসএফ জওয়ান। যার মধ্যে একজন বাঙালি। পাল্টা আক্রমণ করলে মাওবাদীরা জঙ্গলে গা ঢাকা দেয়। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে বেরিয়ে দুপুরে বাজার থেকে মালপত্র কিনে ফিরছিলেন জওয়ানরা। বাচেলিতে আসতেই ল্যান্ড লাইন বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণে বাসের চালক, কনডাক্টর ও খালাশি নিহত হয়েছেন। এই নিয়ে গত 10 দিনে ছত্তিসগড়ে দ্বিতীয়বার হামলা চালাল মাওবাদীরা। মাও অধ্যুষিত এলাকার 18 বিধানসভা আসনে ভোট 12 নভেম্বর। ভোটের মুখে মাও হামলায় চিন্তার ভাঁজ কেন্দ্রীয় সরকারের কপালে।

অক্টোবর মাসেই দান্তেওয়াড়ায় মাওবাদী হামলায় নিহত হন দূরদর্শনের এক ক্যামেরাম্যান ও 2 পুলিসকর্মী। আহত হন অন্য 2 পুলিসকর্মী। পুলিসের গুলিতে 2 মাওবাদীর মৃত্যু হয় বলেও দাবি করা হয়। ঘটনার দিন টহলে বিরয়েছিলেন জওয়ানরা। তাদের সঙ্গে ছিল দূরদর্শনের 3কর্মী। মাওবাদীূদের সঙ্গে গোলাগুলিতে নিহত হন সাব ইনস্পেক্টর রুদ্ধপ্রতাপ, কনস্টেবল মাঙ্গুলাল ও দূরদর্শনের ক্যামেরাম্যান অচ্যুতানন্দ সাহু। গত 15 জুলাই ছত্তিশগড়ের কাঁকের জেলায় মাওবাদীদের হামলায় মৃত্যু হয় 2 বিএসএফ জওয়ানের।

ছত্তিশগড়ের ডেপুটি আইজি (মাওবাদী অপারেশন) সুন্দররাজ পি সংবাদ মাধ্যমে জানান, লোকনাখ সিং ও মুকদিয়ার সিং নামে দুই বিএসএফ কনস্টেবলের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছেন সুদীপ দে নামে এক বাঙালি কনস্টেবল।
গোলগুলির খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়ে হাজির হয় 114 নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ানরা। ততক্ষণে অবশ্য পালিয়ে গিয়েছে মাওবাদীরা।