কত কালো টাকা দেশে ফেরাল কেন্দ্র? জবাব দেবেন না মোদি!

এসবিবি, নয়াদিল্লি : নোট বাতিলের ঘটনা দু’বছর পার। কিন্তু দেশের মানুষ জানেন না কত পরিমাণ কালো টাকা বিদেশ থেকে দেশে ফিরল। 2016 সালের 8 নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন নোটবন্দির ফলে বিদেশ থেকে কালো টাকা ফিরিয়ে আনবেন, জাল টাকা থাকবে না আর জঙ্গিদের টাকার জোগান বন্ধ হবে। কিন্তু কোনও দাবিই বাস্তবায়িত হয়নি।

ঠিক কত টাকা বিদেশ থেকে দেশে এল, তা জানতে তথ্য জানার অধিকার আইনে সম্প্রতি একটি আবেদন করা হয়। সেই আবেদনের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীর দফতর সাফ জানিয়ে দিয়েছে ওই তথ্য দেওয়া যাবে না। কারণ হিসাবে বলা হয়েছে, কালো টাকার তদন্ত করছে বিশেষ তদন্তকারী দল। এখনই এ সম্পর্কে কোনও তথ্য প্রকাশ করলে সেই তদন্ত বাধাপ্রাপ্ত হবে।মার্কিন সংস্থা গ্লোবাল সংস্থা ফিনান্সিয়াল ইন্ট্রিগিটি জানাচ্ছে, 2005-2014 সালের মধ্যে 700 বিলিয়ন ডলার কালো টাকা তৈরি হয়েছে ভারতে।

16 অক্টোবর কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন কেন্দ্রকে নির্দেশে দিয়েছে কালো টাকা সম্পর্কিত সব তথ্য 15 দিনের মধ্য প্রকাশ করতে হবে। সেই নির্দশকেও উপেক্ষা পিএমও।

সঞ্জীব চর্তুবেদী নামে এক প্রাক্তন আমলা তথ্য জানার অধিকার আইনে এই আবেদন করেন।
আবেদনের পরিপ্রক্ষিতে সিটের ওই তদন্তের কথা জানানো হয়েছে। পাশাপাশি বলা হয়েছে, কালো টাকা নিয়ে তদন্ত করছে দেশের একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা। সেইসব সংস্থার কার্যকলাপ আরটিআই আইনের বাইরে। পিএমও ওই কথা জানানোর পরই কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশনে যান চর্তুবেদী। কমিশনের সেই নির্দেশেরই জাবাব দিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর।