মোদিজি প্রমাণ করলেন টাকার রং কালো হয় না, সদানন্দ সত্যবান- এর কলম

সদানন্দ সত্যবান

লাল নীল সবুজের মেলা বসেছে, এটি একটি বহু পুরোনো শব্দের মিলন। মেলা মানেই একটা মন ভালো করে দেওয়া উৎসব আর এই মন ভালো করার উৎসবে সাদা বা কালোর জায়গা সেইভাবে নেই বললেই চলে। আদ্যপ্রান্ত এই ভাবটাই হয়তো মোদিজি 2014 দিল্লির মসনদে বসার পরে অনুভব করেছেন। কিন্তু তার আগে পর্যন্ত তিনি কালোর ওপরে একটু বেশিই জোর দিচ্ছিলেন। তখন কিন্তু সাধারণ মানুষ ‘কালো’কে বেশ উপভোগ করছিলেন এবং সেটার উপরে দাঁড়িয়ে কিছু গরীব মানুষ তাদের স্বপ্নের জাল বুনেও ফেলেছিলেন। কিন্তু তাদের স্বপ্নটা ছিল দিবাস্বপ্ন, সেটা হয়তো আজ তারা বুঝতে পারছেন। কারণ প্রায় গত পাঁচ বছরে মোদিজি বা কেন্দ্রীয় সরকার সাধারণ ভারতবাসীর সেই অলৌকিক দিবাস্বপ্নকে ভেঙ্গে চুরমার করে দিয়ে যে নতুন রঙের উৎসব উপহার দিয়ে চলেছেন তা বর্তমানে বাজারে আসা রংবাহারি ভারতীয় মুদ্রা (টাকা )। সাধারণ ভারতবাসী এখন শুধু হা- হুতাশ করছেন বা অপেক্ষা করছেন এত সব রঙের মধ্যে একটিও কি কালো রং এনে উপহার দেওয়া যায় না। কিন্তু মোদিজি বিলক্ষণ জানেন কালো অশুভ। তাই যদি কালো আনতে গিয়ে তার কিছু পেটোয়া কালোবাজারিদের রোষে পড়েন তাহলে তো 2019-এ কালো’র যোগানই কমে যাবে। তাই তিনি হয়তো কালোকে অন্ধকারে রেখেই অন্য নানা রং দিয়ে সাধারণ মানুষের মন ভুলিয়ে 2019-এ ফের দিল্লির মসনদ দখল করার চেষ্টায় আছেন। কিন্তু একটা কথা সকলেরই মনের মধ্যে ঘুরতে শুরু করেছে এই কালো টাকা ফিরিয়ে আনার যে প্রতিশ্রুতি তিনি 2014-তে দিয়েছিলেন, 2019-এ তা তিনি কিভাবে কাউন্টার করবেন। উনি ব্যক্তি হিসাবে খুবই চতুর। তাই হয়তো তার প্ল্যান- প্রোগ্রাম সাজানো আছে। সাধারণ ভারতবাসীর এখন শুধু অপেক্ষা করার সময়, সেই কালো টাকা ফিরিয়ে আনার কাউন্টার হিসেবে তিনি কি তত্ত্ব দেন এবং যাতে মানুষ আবার মোদি- মোদি করতে থাকেন। কিন্তু একটা জিনিস তো ওনাকে বুঝতে হবে রংবাহারি ব্যাপারটা প্রত্যেক মানুষই পছন্দ করেন। কিন্তু তার মধ্যে সবথেকে বেশি পছন্দ করে বাচ্চা বা শিশুরা। তাই হয়তো তিনি বাচ্চা বা শিশুদের কথাই শুধু ভাবছেন। বড়রা যেটা পছন্দ করে সেটার কথা একদম ভুলেই গেলেন। ওনার তো বোঝা উচিত, শিশুরা বা নাবালকরা ওনাকে ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী করেননি বা করবেনও না। বাচ্চাদের রংবাহারি উপহার দিন, খুবই ভালো। কিন্তু বড়দের কথাও একটু ভাবা উচিত ছিল। বড়দের ভুলে গিয়ে বড়দের প্রয়োজনের জিনিসের মূল্য বৃদ্ধি করে আপনি কি বড়দের বাহবা কুড়াতে পারবেন? বড়রাই যদি আপনার পাশে না থাকে তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ কি, তা আপনি নিশ্চয়ই অনুভব করেন। আপনি শুধু বাচ্চা আর শিশুদের কথা ভেবে নানা রঙের উপহার দিচ্ছেন সেটা কি শুধু এই ভেবে, শিশু দিবসে চাচা নেহেরুর নাম পাল্টে চাচা মোদি বলে আপনাকে ডাকবে সবাই। তা যদি ভেবে থাকেন তাহলে অবশ্যই ভালো পদক্ষেপ। আপনি চাচা হোন। আগাম শুভেচ্ছা রইল। বড়রা কি ভাবছেন তাদের ভাবতে দিন। সবশেষে বলা যায়, টাকার রং কালো হয় না সেটা মোদিজি প্রমাণ করে দিলেন।