ত্রিপুরায় সরকারি কর্মীদের পিএফ-পেনশন বন্ধ করল বিজেপি সরকার

এসবিবি : বিপ্লবের বিপ্লব !

ত্রিপুরার বিজেপি সরকার, সরকারি কর্মচারীদের পেনশন ও পিএফ বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা বিপ্লব দেব ক্ষমতায় আসার আগে তৎকালীন বাম সরকারের বিরুদ্ধে সরকারি কর্মীদের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগ আনতেন। এরপর বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে ত্রিপুরায় ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। এই বিপ্লব দেবের নেতৃত্বে ত্রিপুরার বিজেপি বেতন কমিশন লাগু করে সরকারি কর্মীদের বেতন না বাড়ানোয় তখন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন পর্যন্ত করেছিলেন। এখন সেই বিপ্লব দেবই মুখ্যমন্ত্রী হয়ে সরকারি কর্মচারিদের পেনশন-পিএফ-ই তুলে দিলেন।

ত্রিপুরার বিজেপি সরকারের সিদ্ধান্ত, নতুন ভাবে কাজে যোগ দেওয়া সরকারি কর্মীদের আর কোনও পেনশন দেওয়া হবে না। থাকবে না প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুবিধাও। গত পয়লা জুলাই থেকে যাঁরা নতুন করে সরকারি কাজে যোগ দিচ্ছেন তাঁদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে এই নয়া নিয়ম। পেনশনের পরিবর্তে ‘কন্ট্রিবিউটরি পেনশন স্কিম’-এর মাধ্যমে এককালীন একটা নির্দিষ্ট অঙ্কের টাকা দেওয়া হবে। তবে, তাঁর পরিমাণ এখনও স্পষ্ট নয়। সরকারের যুক্তি, এই সিদ্ধান্তের ফলে সরকারী কর্মচারি খাতে সরকারের খরচ অনেক কমানো যাবে।
ত্রিপুরা সিপিএম এ প্রসঙ্গে বলেছে, রাজ্যের মানুষকে বিপুল কর্মসংস্থান এবং বেতনবৃ্দ্ধির প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। তার পরিবর্তে সরকারি কর্মীদের সঙ্গে প্রতারণা করল বিজেপি সরকার।