ঘাটাল কোর্টে ক্ষোভ উগরে কুণাল বললেন, আইনের নামে প্রহসন

এসবিবি: ঘাটাল কোর্টে ক্ষোভ উগরে দিলেন কুণাল ঘোষ। বুধবার রাজ্য সরকারের একটি মামলায় ঘাটাল এসিজেএম লীনা গোলদারের এজলাসে উপস্থিত হন কুণাল। সকালে নির্ধারিত সময়ে হাজিরা দেন তিনি। বিচারক জানান, মামলা হবে দ্বিতীয়ার্ধে। ক্ষুব্ধ হন কুণাল। এসিজেএম কোর্টে নিজেই সওয়াল করে তিনি বলেন,” এই কোর্ট আর এই মামলা চালাতে পারে না। কারণ প্রথমত এই মামলাটি সিবিআই নিয়ে নিয়েছে। রাজ্য পুলিশের কিছু করার নেই। আর এর পাশাপাশি মহামান্য কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে এম পি, এম এল এদের মামলাগুলির জন্য বিশেষ আদালত গঠন করা হয়েছে। ফলে কোনো অবস্থাতেই ঘাটাল আদালতে এই মামলা চলতে পারে না। অথচ প্রতি তারিখে আমি আসি। এটা চলতে পারে না।”
এসিজেএম তখন বলেন,” আমি কিন্তু এসবের কোনো অফিসিয়াল অর্ডার পাই নি। তাই আমাকে মামলার তারিখ দিতেই হবে।”
কুণাল বলেন,” নির্দেশের নথি আপনি কেন পান নি, সেটা আমি বলতে পারব না। ওটা আমার দেখার বিষয় না। তবে আপনি বললে ওই নির্দেশের কপি দেওয়ার চেষ্টা করব।”
বিচারক তখন তাঁকে ওই নির্দেশের কপি পেশের নির্দেশ দেন। কুণাল জানান তিনি পরে পাঠিয়ে দেবেন। এরপর কুণালকে এদিনের মত কলকাতা ফেরার অনুমতি দেন বিচারক। মামলার পরবর্তী দিন পরে জানানো হবে।
এজলাস থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ক্ষোভে ফেটে পড়ে কুণাল বলেন,” আমি নিয়ম করে হাজিরা দিয়ে যাই। অথচ মামলাটি এখানে চলার কথাই না। অন্য অভিযুক্তরাও অধিকাংশ দিন আসেন না। আমি একা নিয়ম মেনে উপস্থিত হই। এভাবে চলতে পারে না। আদালতকে সম্মান করি। নাহলে বলতাম এই আইনি ব্যবস্থার নামে প্রহসন চলছে।”