নষ্ট মেয়ে

ড.দেবানী লাহা(মল্লিক)

ড.দেবানী লাহা(মল্লিক)

আলোর শহর ঝলমলিয়ে
দুগ্গা পুজোর ঢাক,
নষ্ট মেয়ের নতুন শাড়ি
কপাল পুড়ে খাঁক।

দুগ্গা আমার ডাকের সাজে
পদ্ম একশো আট,
জল ভরা চোখ কাঁদছে মেয়ে
মিথ্যে রাজ্যপাট।

দুগ্গা আমার শতেক ভরি
গয়না পরে গায়,
ও মেয়ে তুই রঙ মেখেছিস
সাজলি কি আয়নায়?

হাজার মানুষ দুগ্গা দেখে
পণ্য রে মেয়ে হলি,
শরীর বেচিস অন্ধকারে
শহরতলির গলি।

গঙ্গাজলে প্রদীপতলে
দুগ্গা মাকে পূজি,
একলা রাতে মনের ক্ষতে
নারীর শরীর খুঁজি।

দুগ্গা,দুগ্গা ভক্তি কত
হাজার উপচার,
শোষণ,পীড়ন,বস্ত্রহরণ
মেয়ে নগ্নিকা বার বার।

দুগ্গা মায়ের পুজোর সাজে
তোমার -আমার সত্তা,
জানবে না কেউ নিঃশব্দে
কন্যা ভ্রূণের হত্যা।

মা বলো ঐ দুগ্গা মাকে
গলির মেয়েই নষ্ট,
পুরুষ,পুরুষ,পুরুষতন্ত্র
দেখছি চোখে স্পষ্ট।

পুরুষ ছুঁলে নষ্ট মেয়ে
পুরুষ রে তুই আয়,
নারীই কেবল নষ্ট হবে
পুরুষ কেন নয়?

নারীর শরীর মাখলি পুরুষ
লোভাতুর তোর মন,
দুগ্গা মায়ের হাতেই হবে-
পুরুষতন্ত্র বিসর্জন।