EXCLUSIVE : দেশের এক মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা তাঁর স্ত্রীর ভালবাসার চিঠি

চন্দন বন্দ্যোপাধ্যায়

তিনি ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। আর উনি রাজ্যের ফার্স্ট লেডি নিতি দেব। আজ, শনিবার ওদের বিবাহ বার্ষিকী। 17 পূর্ণ হয়ে 18-য় পা। মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছেন তাঁর ব্যক্তিগত অনুভূতির কথা। সম্ভবত কোনও রাজ্যের ফার্স্ট লেডির এমন খোলাখুলি পোস্ট এই প্রথম —

17 নভেম্বর, 2001। আমাদের বিয়ে হল। তুমি ছিলে আমার প্রথম ভালবাসা। আমি ভাগ্যবান তোমার মতো স্বামী পেয়ে। আমার এখনও স্পষ্ট মনে আছে, বিয়ের ঠিক চার ঘন্টা পরে আমরা দিল্লি থেকে শিয়ালদহ রাজধানীতে চেপেছিলাম। ট্রেনে চেপেই তোমার সঙ্গে ঝগড়া। তারপর থেকে টম-জেরির মতো আমরা ঝগড়াই করে চলেছি। সব সময় আমি তোমার এক নম্বর সমালোচক। এরজন্য আমি মোটেই অনুতপ্ত নই। কারণ, আমি বিপ্লবে অনুরক্ত, আমি তোমায় ভালবাসি। তুমি আমার দুই সন্তানের বাবা আমার আত্মারও।

দীর্ঘদিন আলাদা থাকার পর আমরা আবার একসঙ্গে থাকার সুযোগ পাচ্ছি। কিন্তু তোমার ব্যাস্ততা আর দায়িত্বের কারণে আমরা তোমায় কম পাই। কিন্তু এরজন্য আমার কোনও দুঃখ নেই। ত্রিপুরার মানুষ তোমায় ভালবাসে। আর তাদের জন্য কাজ করাটা তোমার প্রথম কর্তব্য। আমার ভালবাসা শর্তহীন, দাবিহীন। শেষ নিঃশ্বাস অবধি তোমায় ভালবাসি। 80 বছর পর্যন্ত এভাবেই ভালবেসে যেতে চাই।

ছেলে-মেয়ে আর স্ত্রীর সঙ্গে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব

তোমায় ভালবাসি বিপ্লব। তুমি ত্রিপুরার সবচেয়ে ধনী মানুষ। ত্রিপুরার 37 লক্ষ্য মানুষ তোমায় ভালবাসে। অথচ তোমায় আমার দেওয়ার মতো কিছুই নেই। একমাত্র প্রতিশ্রুতি ছাড়া। তোমার সততা, কর্মময়তা ত্রিপুরাকে একদিন মডেল স্টেট করবে আমি নিশ্চিত। আর তোমায় আমি যে কথা বলতে চাই….

মহব্বত পরবাহ,
অওর ইজ্জত বেপনাহ
ইয়েহি উওহ দৌলত হ্যায় জো
হাম অক্সর তুমসে মাঙতে হ্যায়!!