শোভনের ইস্তফায় অন্য গন্ধ পাচ্ছেন সুজন

এসবিবি: নিজের পরিবার, বিশেষত স্ত্রী’র সঙ্গে সমস্যাই ক্রমশ রাজনীতিক শোভন চট্টোপাধ্যায়কে কোণঠাসা করে দিচ্ছিল। এই নিয়ে দলনেত্রীর মৃদু বকুনিও খেতে হয়েছে তাঁকে। কিছুদিন আগে এরকমই এক পরিস্থিতিতে কিছুটা অভিমানেই বাংলায় পদত্যাগপত্র লিখে জমা দিয়েছিলেন দমকলমন্ত্রী। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যে ‘দিদি’-র নির্দেশে তা ফিরিয়েও নেন।

মঙ্গলবারের ঘটনাতেও সেরকমই অভিমান জড়িয়ে আছে বলে ধারণা অনেকের। কারণ বিধানসভার অধিবেশন চলার মাঝে এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কিছুটা বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। খান বকুনিও। নবান্নের একটি অনুষ্ঠানেও শোভনকে তিরস্কার করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারপরই শোভন চট্টোপাধ্যায় পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন।

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী এই বিষয়ে বলেন,”যদু বংশ ধ্বংস হওয়ার পথে। রাম রাখবেন নাকি শ্যামকে রাখবেন। এরা তোলাবাজ, তোলাবাজদের মধ্যে লড়াই। সে লড়াইয়ে কেউ এগোচ্ছে, কেউ পিছোচ্ছে। আজ শোভন গেছেন এরপর কে যাবেন তার তালিকা যেন উনি তৈরি করে রাখেন।

এমন হতে পারে যে, তোলাবাজির যে অংশ দেওয়ার কথা ছিল যার, সে অংশটা পাননি।75 শতাংশ দিতে হবে তা হয়ত দেয়নি। ভাগে কম পড়েছে। তৃনমূলের যা নেতা মন্ত্রী আছে,বেশির ভাগটা অপদার্থ,অসভ্য,তোলাবাজ। যতবড় তোলাবাজ ততবড় নেতা।”