রাজ্যের সব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আউটডোর টিকিট মিলবে অনলাইনে

এসবিবি : ন্যাশনাল মেডিক্যাল হোক বা পিজি হাসপাতাল, অথবা এনআরএস কিংবা আরজিকর— সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ডাক্তার দেখাতে লাইনে দাঁড়িয়েই কেটে যায় কয়েক ঘণ্টা! প্রথমে টিকিট কাটা, তারপর সেই টিকিটের এন্ট্রি, তারপর ডাক্তার দেখানোর লাইন— সব মিলিয়ে চার-পাঁচ ঘণ্টার কম নয়! মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব ধরনের সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা বিনামূল্যে করে দেওয়ার পর রোগীর সংখ্যা আরও বেড়েছে। এই ভিড় নিয়ন্ত্রণ এবং সরকারি ব্যবস্থাকে আধুনিক করতে এবার রাজ্যের সব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আউটডোর টিকিট অনলাইনে কাটার ব্যবস্থা চালু করছে স্বাস্থ্যদপ্তর।

এই পরিষেবার জন্য সমস্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আউটডোরে অনলাইন টিকিট স্ক্যানার বসানো হবে। দপ্তর সূত্রের খবর, সর্বপ্রথম এই পরিষেবা চালু হচ্ছে রাজ্যের এক নম্বর সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল পিজিতে। তারপর ধাপে ধাপে অন্যান্য মেডিক্যালগুলিতেও তা চালু হবে। পিজি’র সেন্ট্রাল আউটডোর টিকিট করার জায়গায় 10টি কাউন্টার রয়েছে। তার একটিতে এই অনলাইন টিকিট স্ক্যানিং হবে।
উল্লেখ্য, অনলাইনে আউটডোর টিকিট কাটতে দুই টাকা বা অন্য কোনও খরচই লাগবে না। ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকেই শুরু হয়ে যাচ্ছে এই ব্যবস্থা। স্বাস্থ্যদপ্তরের একাধিক শীর্ষ সূত্রে এ খবর জানা গিয়েছে।
এ প্রসঙ্গে বুধবার দপ্তরের আইটি কো-অর্ডিনেটর সৌরভ ঘোষ বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে এই পরিষেবা চালু হচ্ছে। পিজি অধিকর্তা ডাঃ মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, অনলাইন টিকিট কাটা বা অ্যাপয়েন্টমেন্ট-এর ব্যবস্থা চালুর জন্য আমরাই সরকারের কাছে বিস্তারিত পরিকল্পনা সহ প্রস্তাব দিয়েছিলাম।