সুপ্রিম কোর্টে নৈশ-সফর মোদির, জল্পনা একাধিক সর্বস্তরে

এসবিবি : শীর্ষ আদালতে একাধিক স্পর্শকাতর মামলা চলছে। এ সব মামলার রায় বিরুদ্ধে গেলে সমস্যা বাড়বে কেন্দ্রের, প্রধানমন্ত্রীর। ঠিক সেই সময় নরেন্দ্র মোদির সুপ্রিম কোর্টে ‘অভূতপূর্ব’ নৈশ-সফর ঘিরে রাজধানীতে জোর জল্পনা। গত 25 নভেম্বর নরেন্দ্র মোদি এই নৈশ-সফর করেন। বলা হচ্ছে, সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির এজলাসটা কেমন, তা ঘুরে দেখার নাকি ইচ্ছে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর। এজলাসের একেবারে প্রথম সারিতে বসে চায়ের পেয়ালায় চুমুক দিয়ে তিনি জানতে চান, ঠিক কী ভাবে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির এজলাসে শুনানি চলে।

এই ঘটনায় জল্পনা বাড়ছেই। কারণ, গত ছ’দশকে দেশের কোনও প্রধানমন্ত্রী সুপ্রিম কোর্টের ভিতরে যাননি। গুঞ্জন শুরু হয়, প্রধানমন্ত্রী কি প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর সঙ্গে সম্পর্ক মধুর করতে চাইছেন? প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির মধ্যে কী কথা হয়েছিল, তা নিয়েও জল্পনা চলছে।

এদিকে এই ইস্যুতে আরও একটি প্রশ্ন উঠেছে। প্রধান বিচারপতি গগৈ কেন প্রধানমন্ত্রীকে এই সুযোগ দিচ্ছেন? রাফাল-চুক্তিতে দুর্নীতির অভিযোগে তদন্তের দাবির মামলায় প্রধান বিচারপতি এখনও রায় ঘোষণা করেননি। সুপ্রিম কোর্টের ওই এক নম্বর এজলাসেই তার শুনানি হয়েছে। ওই মামলায় অভিযোগের আঙুল প্রধানমন্ত্রীর দিকেই। সে সময় এই সাক্ষাৎ ন্যায্য কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।