ফিরে দেখুন ফেলে আসা বছর

বছরের প্রথম দিন থেকেই ‘এনআরসি’ বা ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনস নিয়ে উত্তপ্ত অসম-সহ গোটা দেশ। 31 ডিসেম্বর, 2017 মধ্যরাতে এই খসড়া প্রকাশ করেন ভারতের রেজিস্ট্রার জেনারেল ।

1 জানুয়ারি মুম্বই থেকে পালিয়ে নীরব মোদি প্রথম সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে যান। পিএনবি আর্থিক প্রতারণা কাণ্ডে অভিযুক্ত মোদী ও মেহুল চোকসি।

দীর্ঘ 25 বছরের বাম শাসনের অবসান ত্রিপুরায়। রাজ্যের 59 আসনে ভোটগ্রহণ হয় 18 ফেব্রুয়ারি। ফল ঘোষণা হয় 3 মার্চ। 44টি আসনে জিতে বিজেপি-আইপিএফটি জোটের মুখ্যমন্ত্রী হন বিপ্লবকুমার দেব।

9 এপ্রিল সন্ধ্যায় নুরপুর-চাম্বা সড়কে খাদে বাস পড়ে 27 স্কুলপড়ুয়া-সহ 30 জনের মৃত্যু। মৃত শিশুরা সবাই রাম সিং পাঠানিয়া মেমোরিয়াল স্কুলের ছাত্রছাত্রী।

12 এপ্রিল প্রবল ঝড়ের প্রভাবে ভেঙে গেল তাজমহলের একটি মিনার। গভীর রাতে প্রবল ঝড় আছড়ে পড়ে আগরায়। হাওয়ার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় 130 কিমি।

22 মে দূষণ সৃষ্টিকারী বেদান্ত স্টারলাইট কপার কারখানা বন্ধের দাবিতে তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে জড়ো হয় কয়েক হাজার মানুষ। বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিসের ভ্যান উলটে, পাথর ছুড়ে পুলিশকে কোণঠাসা করার চেষ্টা করে। সে সময়ই বেঁধে যায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ।

23 মে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন এইচ ডি কুমারস্বামী। তার আগের সপ্তাহেই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন বিজেপির ইয়েদুরাপ্পা। নির্বাচনের ফলে ত্রিশঙ্কু হয়ে যাওয়া বিধানসভায় ভোট-পূর্ব ‘শত্রু’ কংগ্রেস-জেডিএস হাতে হাত ধরায় প্যাঁচে পড়ে বিজেপি।

6 জুন ছয় সমাজকর্মী রোনা উইলসন, সুধীর ধাওয়ালে, সোমা সেন, সুরেন্দ্র গাডলিং, মহেশ রাউত এবং রানা জেকবকে আটক করে পুনে পুলিশ।

জম্মু-কাশ্মীরে প্রায় সাড়ে তিন বছর পিডিপির সঙ্গে সরকার চালানোর পর 19 জুন সমর্থন তুলে নেয় বিজেপি। সরকার ভেঙে যায়, জারি হয় রাষ্ট্রপতি শাসন।

2018 সালের আগস্টে কেরলে অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্টি হয় ভয়াবহ বন্যার। প্রায় এক শতাব্দী সময়কালে এত বড়ো বন্যার নজির আর দ্বিতীয়টি নেই বলেই দাবি। ক্ষতিগ্রস্ত হয় প্রায় গোটা রাজ্য। বন্যার ফলে 500 জন মানুষের মৃত্যু ঘটে এবং 50 জন নিখোঁজ হয়।

26 সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্ট 12 সংখ্যার আধার নম্বরকে বৈধ হিসাবে ঘোষণা করে। একই সঙ্গে বলা হয়, ব্যাঙ্ক, মোবাইল পরিষেবা বা স্কুল-কলেজে ভর্তির মতো আনুষঙ্গিক বিষয়গুলিতে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক নয়।

27 সেপ্টেম্বর ভারতীয় দণ্ডবিধির 497 ধারাকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বেঞ্চ। জানানো হয়, পরকীয়া বিচ্ছেদের একটি কারণ হতে পারে, কিন্তু কখনোই ফৌজদারি অপরাধ হতে পারে না।
জম্মু-কাশ্মীরে প্রায় সাড়ে তিন বছর পিডিপির সঙ্গে সরকার চালানোর পর 19 জুন সমর্থন তুলে নেয় বিজেপি। সরকার ভেঙে যায়, জারি হয় রাষ্ট্রপতি শাসন।

28 সেপ্টেম্বর কেরলের সবরিমালায় আয়াপ্পা মন্দিরে রজঃস্বলা মহিলাদের প্রবেশের অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। দশ থেকে পঞ্চাশ বছরের মহিলাদের ওই মন্দিরে প্রবেশাধিকারের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছে ত্রিবাঙ্কুর দেবস্বম বোর্ড। তবে শীর্ষ আদালতের রায়ের পর উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা দেশ।

31 অক্টোবর গুজরাতের কেবাডিয়ায় বিশ্বের সব চেয়ে উঁচু স্ট্যাচু, বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তিন হাজার কোটি টাকার এই মূর্তির নাম স্ট্যাচু অব ইউনিটি।
এ বছর বঙ্গোপসাগর এবং আরবসাগর মিলিয়ে সাতটা ঘূর্ণিঝড় তৈরি হল, যা এক কথায় রেকর্ড। এর মধ্যে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হল চারটে, যা সরাসরি আঘাত হানল ভারতের মূল ভূখণ্ডে।

1 নভেম্বর রাতে অসমের তিনসুকিয়ায় সন্দেহভাজন বন্দুকবাজদের গুলিতে প্রাণ হারান পাঁচজন। এর পরেই সন্দেহের তির গিয়েছিল আলফা (স্বাধীন) গোষ্ঠীর দিকে। কিন্তু তারা দায় অস্বীকার করে।

11 ডিসেম্বর রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, তেলঙ্গানা, ছত্তীসগঢ়, মিজোরাম – 5 রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হয়। দেখা যায়, বিজেপির দখলে থাকা রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং ছত্তিশগঢ় চলে গিয়েছে কংগ্রেসের দখলে।

17 ডিসেম্বর, কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমারকে 1984-এর শিখ-বিরোধী দাঙ্গায় দোষী সাব্যস্ত করল দিল্লি হাইকোর্ট। হাইকোর্ট সজ্জন কুমারের যাবজ্জীবন ঘোষণা করে।

2018 সালের আগস্টে কেরলে অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্টি হয় ভয়াবহ বন্যার। প্রায় এক শতাব্দী সময়কালে এত বড়ো বন্যার নজির আর দ্বিতীয়টি নেই বলেই দাবি। ক্ষতিগ্রস্ত হয় প্রায় গোটা রাজ্য।

5 সেপ্টেম্বর ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা খারিজ করে দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট জানিয়ে দিল সমকামিতা কোনো অপরাধ নয়। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চের চার বিচারপতি এ ব্যাপারে একমত হন।

27 ডিসেম্বর লোকসভায় পাশ হল ঐতিহাসিক তিন তালাক-বিরোধী বিল।। টানা ৪ ঘণ্টার বিতর্কের পর এই বিল পাশ হলেও কংগ্রেস, এআইডিএমকে-সহ কয়েকটি বিরোধী দল ওয়াকআউট করে।

ঘটনাবহুল 2018-য় প্রাণ হারিয়েছেন বহু মানুষ। তবে যাঁদের মৃত্যু নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে যথেষ্ট প্রতিবেদন প্রকাশ পেয়েছে তাঁদের মধ্যে অন্যতম অনন্ত কুমার, 12 নভেম্বর। মদনলাল খুরানা, 27 অক্টোবর। গুরুদাস কামাত, 22 আগস্ট। অটলবিহারী বাজপেয়ী,

16 আগস্ট। এম করুণানিধি, 7 অগাস্ট।

26 সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্ট 12 সংখ্যার আধার নম্বরকে বৈধ হিসাবে ঘোষণা করে। একই সঙ্গে বলা হয়, ব্যাঙ্ক, মোবাইল পরিষেবা বা স্কুল-কলেজে ভর্তির মতো আনুষঙ্গিক বিষয়গুলিতে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক নয়। তবে প্যান কার্ড বা আয়কর দাখিলের ক্ষেত্রে আধার আগের মতোই কার্যকর থাকবে।

27 সেপ্টেম্বর ভারতীয় দণ্ডবিধির 497 ধারাকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বেঞ্চ। জানানো হয়, পরকীয়া বিচ্ছেদের একটি কারণ হতে পারে, কিন্তু কখনোই ফৌজদারি অপরাধ হতে পারে না।

28 সেপ্টেম্বর কেরলের সবরিমালায় আয়াপ্পা মন্দিরে রজঃস্বলা মহিলাদের প্রবেশের অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। দশ থেকে পঞ্চাশ বছরের মহিলাদের ওই মন্দিরে প্রবেশাধিকারের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছে ত্রিবাঙ্কুর দেবস্বম বোর্ড।

31 অক্টোবর গুজরাতের কেবাডিয়ায় বিশ্বের সব চেয়ে উঁচু স্ট্যাচু, বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তিন হাজার কোটি টাকার এই মূর্তির নাম স্ট্যাচু অব ইউনিটি।

একটা নয়, দু’টো নয়, সাত-সাতটা। এ বছর বঙ্গোপসাগর এবং আরবসাগর মিলিয়ে সাতটা ঘূর্ণিঝড় তৈরি হল, যা এক কথায় রেকর্ড। এর মধ্যে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হল চারটে, যা সরাসরি আঘাত হানল ভারতের মূল ভূখণ্ডে। কোনো ঘূর্ণিঝড়ই বিশেষ প্রাণহানি না ঘটালেও, ঘূর্ণিঝড়ের ধরনে চিন্তিত আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা।

1 নভেম্বর রাতে অসমের তিনসুকিয়ায় সন্দেহভাজন বন্দুকবাজদের গুলিতে প্রাণ হারান পাঁচজন। এর পরেই সন্দেহের তির গিয়েছিল আলফা (স্বাধীন) গোষ্ঠীর দিকে। কিন্তু তারা দায় অস্বীকার করে।

11 ডিসেম্বর রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, তেলঙ্গানা, ছত্তীসগঢ়, মিজোরাম – 5 রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হয়।

17 ডিসেম্বর, কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমারকে 1984-এর শিখ-বিরোধী দাঙ্গায় দোষী সাব্যস্ত করল দিল্লি হাইকোর্ট। হাইকোর্ট সজ্জন কুমারের যাবজ্জীবন ঘোষণা করে।

27 ডিসেম্বর লোকসভায় পাশ হল ঐতিহাসিক তিন তালাক-বিরোধী বিল।। টানা 4 ঘণ্টার বিতর্কের পর এই বিল পাশ হলেও কংগ্রেস, এআইডিএমকে-সহ কয়েকটি বিরোধী দল ওয়াকআউট করে। লোকসভায় সংখ্যাধিক্যের নিরিখে অনায়েসেই বিল পাশ করে বিজেপি সরকার।

চলে গেলেন কবি সাহিত্যিক নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী

95 বছরে থেমে গেল নীল আকাশের নিচে যাত্রা, ভুবন থেকে বিদায় নিলেন মৃণাল সেন
অনলাইনে বিক্রি খাদ্য, সব্জি ও মুদির সামগ্রীর গুণগত মান নিয়ে নয়া গাইডলাইন সরকারের
প্রধানমন্ত্রীর সফরের কয়েকঘণ্টা পরেই পাথরবাজদের হাতে প্রাণ গেল এক পুলিশ কর্মীর!

15শ্রমিক আটকে পড়া মেঘালয়ের সেই খনিতে নেমে ডুবুরিরা পেলেন 3টি ভাঙাচোরা হেলমেট
নাগরিকত্ব ইস্যু নিয়ে বিতর্কের মাঝেই অসম সফরে প্রধানমন্ত্রী

আরও পড়ুন- প্রতিদিনের খাবারেই লুকিয়ে থাকে এই সাদা বিষ