সংক্রান্তি স্পেশাল মেনু – কড়াইশুঁটির ভাজা পিঠে

এসবিবি : পৌষের শেষ। মাঘের শুরু। চারিদিক বেশ ঠান্ডা। শীতকাল মানেই নানা মরশুমি সবজি। ফুলকপি, বাঁধাকপি, কড়াইশুঁটি আরও কত কি। পৌষ পার্বণে পিঠে পুলির সঙ্গে যদি সবজির যোগসূত্র তৈরি করা যায়, তাহলে কেমন হয়? সংক্রান্তির দিন রইলো একটি নতুন পিঠের রেসিপি। যার নাম কড়াইশুঁটির ভাজা পিঠে। কীভাবে বানাবেন? দেখে নিন রেসিপি।

উপকরণ – মটরশুঁটি 200 গ্রানম, চালের গুঁড়ো 50 গ্রাম, 50 গ্রাম, চিনি 50 গ্রাম, নলেন গুঁড় ও পাটালি 50 গ্রাম, সুজি হাফ কাপ, সাদা তেল, নুন আর জল পরিমাণমত, এলাচ 4-5টি, জিরে হাফ চামচ, ধনে, শুকনো লঙ্কা ও গোলমরিচের গুঁড়ো হাফ চামচ করে ও একটি সাদা কাপড়ের টুকরো।

প্রণালী – প্রথমে মটরশুঁটি থেকে শুঁটিগুলো ছাড়িয়ে তা জলে সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ মটরশুঁটি, সামান্য নুন, মিষ্টি দিয়ে মিক্সিতে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন। এরপর কড়াইতে মটরশুঁটির পেস্টের সঙ্গে চালের গুঁডো় মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি আঠালো হয়ে এলে ঠান্ডা করতে দিতে হবে।
পরবর্তী পর্যায়ে নারকেল কুঁরিয়ে নিতে হবে, জিরে, ধনে, শুকনো লঙ্কা , গোলমরিচ ও এলাচের দানাগুলিকে ভেজে গুঁড়ো করে নিতে হবে। সেই সঙ্গে একটি পাত্রে সুজি ভিজিয়ে রাখতে হবে একঘন্টা। এবার 2-3 চামচ তেল ময়ান দিয়ে ভালো করে মেখে নিতে হবে ময়দা। এরপর মটরশুঁটির মিশ্রণ, জল ঝরানো সুজি, ময়দা, সামান্য চিনি দিয়ে একসঙ্গে মেখে নিন। ময়দা মাখা হয়ে গেলে তার থেকে মণ্ড বানিয়ে নিন। সুগন্ধের জন্য এলাচ গুঁড়ো বা ভাজা মশলার মিশ্রণ দিতে পারেন। হয়ে গেলে মণ্ডটিকে একটি সাদা কাপড়ের টুকরোতে জড়িয়ে 1 ঘন্টা অপেক্ষা করুন।

আরও পড়ুন – প্রধানমন্ত্রীর সভায় অনুপস্থিত ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী, বিতর্কের ঝড় রাজনৈতিক মহলে

একঘন্টা পর কড়াইতে নারকেল কোরা দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন। কিছুক্ষণ পর কড়াইতে এক কাপ দুধ ও অল্প পাটালি দিয়ে দিন। নারকেল কোরা চ্যাটচ্যাটে হয়ে এলে বুঝতে হবে পুর প্রস্তুত। ওপর থেকে এলাচ গুঁড়ো ছড়িয়ে কড়াই নামিয়ে নিন। এবার মটরশুঁটির মিশ্রণ থেকে ছোট গোলাকার বল তৈরি করে তা বেলুন। বেলার সময় মিশ্রণটিকে চ্যাপ্টা আকার দিন। আর তার মাঝখানে নারকেলের পুর দিন। এবার পুর সুদ্ধ পিঠেটাকে মোমোর আকার দিয়ে মুখ বন্ধ করে দিন। পিঠেগুলি এবার ভেজে নিলেই তৈরি কড়াইশুঁটির ভাজা পিঠে।

আরও পড়ুন – সোনিয়া-রাহুল নন, তৃণমূলের ব্রিগেডে থাকবেন মল্লিকার্জুন খাড়গে, থাকছেন না প্রদেশ নেতারাও