পুলিশ তৎপর থাকলেও মহাব্রিগেডের জেরে যানজট হতে পারে শহরে

এসবিবি : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা মহা- ব্রিগেডের জেরে শনিবার সকাল থেকেই কলকাতা যানজটে স্তব্ধ হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা কলকাতা পুলিশের। সমাবেশের জন্য শহরের যান চলাচলের ক্ষেত্রে কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা পুলিস।

আরও পড়ুন- মহা-ব্রিগেডে যোগ দিতে শুক্রবারই শহরে পা রাখছেন বিজেপি-বিরোধী মহা-তারকারা

● কলকাতা পুলিস শহর সচল রাখার চেষ্টা করবে। কিন্তু কোন রাস্তা কতক্ষণ খোলা থাকবে, তা পুরোপুরি নির্ভর করছে পরিস্থিতির উপর।

● শনিবার, 19 জানুয়ারি ভোর 4টে থেকে রাত 8টা পর্যন্ত শহরে মালবাহী গাড়ি চলাচল করতে পারবে না।

● ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল, এজেসি বোস রোডের হেস্টিংস রোড থেকে ক্যাথিড্রাল রোড পর্যন্ত, কুইন্সওয়ে, ক্যাথিড্রাল রোড, লাভার্স লেন, ক্যাসুরিনা অ্যাভিনিউ-সহ ময়দান সংলগ্ন একাধিক রাস্তাকে “NO PARKING” এলাকা বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

● শনিবার ভোর থেকেই ময়দান হয়ে চলাচল সব ট্রাম রুট বন্ধ থাকবে।

● শনিবার খুব সকাল থেকেই রাজ্যের প্রত্যন্ত জেলা থেকে আসা তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা ব্রিগেডের অভিমুখে রওনা হবেন।

আরও পড়ুন- গুজরাটে সিঙ্গাপুরের দলনেতা প্রসূন

● উত্তরবঙ্গ থেকে আসা কর্মী-সমর্থকরা শিয়ালদহ, মৌলালি, এস এন ব্যানার্জি রোড, ডোরিনা ক্রসিং হয়ে ব্রিগেডে যাবেন।

● ফলে খুব সকাল থেকেই বেলেঘাটা মেন রোড, সিআইটি রোড, এজেসি বোস রোড, লেনিন সরণি, এপিসি রোড সংলগ্ন এলাকায় যানজটের আশঙ্কা থাকছে।

● হাওড়া স্টেশন থেকে আসা তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা ব্রাবোর্ন রোড ধরে মিছিল করে ময়দানে আসবেন।

● ফলে স্ট্র্যান্ড রোড, এমজি রোড যানজটের আশঙ্কা রয়েছে।

● শনিবার হাওড়া বা শিয়ালদহ স্টেশন থেকে দূরপাল্লার ট্রেন ধরার তাড়া থাকলে, হাতে অনেকটা বাড়তি সময় নিয়ে যাত্রীদের রাস্তায় নামতে হবে।

আরও পড়ুন- একদিনের পিকনিকের একান্ত ঠিকানা

● ব্রাবোর্ন রোড দিয়ে মিছিল আসার কথা। তাই লালবাজারের পরামর্শ, হাওড়া থেকে ট্রেন ধরতে হলে, শনিবার বিদ্যাসাগর সেতু হয়ে হাওড়া গেলে বাড়তি সুবিধা মিলবে।

● শহরের পশ্চিমপ্রান্ত অর্থাৎ বেহালা, ঠাকুরপুকুর এলাকা থেকে বিমানবন্দরে যেতে হলে করুণাময়ী ব্রিজ, আনোয়ার শাহ কানেক্টর হয়ে বাইপাস ধরে যাওয়াই ভালো।

● শনিবার আংশিক ছুটি। তাই ব্রিগেড সমাবেশ হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি পাবেন সরকারি কর্মচারীরা।

● দমকলের মতো জরুরি পরিষেবা তো বটেই, পাশাপাশি প্রায় সব বেসরকারি অফিস, আদালত খোলা থাকে শনিবার। তাই ভোগান্তি একদম এড়ানো যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন- ফের কাঠগড়ায় সৌম্যজিৎ, এবার অভিযোগ শারীরিক হেনস্থার

● হাসপাতালে যাওয়ার পথে যানজটে কেউ আটকে পড়লে, পুলিস সাহায্য করবে।

● আপৎকালীন পরিস্থিতিতে কেউ রাস্তায় আটকে পড়লে, প্রয়োজনে কলকাতা পুলিসের ‘100 ডায়াল’-এ ফোন করলে সাহায্য মিলবে।