নির্বাসন প্রত্যাহার, সাময়িক স্বস্তি হার্দিক-রাহুলের

এসবিবি স্পোর্টস : করণ জোহরের টেলিভিশন শোয়ে মহিলাদের সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। তার খেসারত দিতে হয়েছিল দুই ক্রিকেটারকে। হার্দিকের সঙ্গে ওই শোয়ে উপস্থিত থাকায় ভারতীয় বোর্ড নির্বাসনে পাঠায় লোকেশ রাহুলকেও। অবশেষে সাময়িক স্বস্তি। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতি দিয়ে বোর্ডের প্রশাসক কমিটি জানিয়ে দিল, দুই ক্রিকেটারের উপর থেকেই নির্বাসন প্রত্যাহার করে নেওয়া হল।

আরও পড়ুন- নতুন খাবারের খোঁজে বন থেকে শহরের দোকানে দুই বাঁদর

কিন্তু হঠাৎ এমন সিদ্ধান্ত কেন ?

মহিলাদের সম্পর্কে অপ্রীতিকর মন্তব্যের পরে প্রথমে শো-কজ করা হয়েছিল কোহলির দলের এই দুই ক্রিকেটারকে। দু’জনেই সেই শো-কজের জবাবও দেন। কিন্তু তারপরেও অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে দেশে ফেরানো হয় হার্দিক-রাহুলকে। বিষয়টি সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বিসিসিআই-এর সিওএ খতিয়ে দেখতে শুরু করেন। সেখানেও তীব্র দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন বিনোদ রাই এবং ডায়ানা এডুলজি। যদিও বোর্ডের কার্যনির্বাহী সভাপতি সিকে খান্না বিষয়টির নিস্পত্তি চেয়ে আগেই দুই ক্রিকেটারকে নির্বাসন থেকে রেহাই দেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন। এদিকে, ‘ওমবাডসম্যান’ হিসেবে গোপাল সুব্রহ্মনিয়মকে নিয়োগ করেছিল বিসিসিআই৷ কিন্তু তিনি সরে দাঁড়ানোয় আদালতের দ্বারস্থ হয় সিওএ৷ ওমবাডসম্যান নিয়োগে দেরি হওয়ায় এদিন টিম ইন্ডিয়ার এই ক্রিকেটারের উপর থেকে নির্বাসন তুলে নেয় সিওএ৷

আরও পড়ুন- বিনিসুতোয় ডেবিউ করলেন গায়িকা জয়া

বোর্ডের প্রশাসনিক কমিটির তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়, “অ্যামিকাস কুরি পিএস নরসিংহের সম্মতিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হার্দিক পান্ডিয়া এবং লোকেশ রাহুলের উপর থেকে অবিলম্বে নির্বাসন প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে।” আগামী 5 ফেব্রুয়ারি অ্যাপেক্স কোর্টে ফের উঠতে পারে বিষয়টি। তবে তদন্ত চললেও বাইশ গজে নামতে আর কোনও বাধা রইল না এই দুই ক্রিকেটারের। ফলে মনে করা হচ্ছে, চলতি নিউজিল্যান্ড সিরিজে দেখা যেতে পারে হার্দিক পান্ডিয়াকে।