মাধ্যমিক-2019: ছাত্র- পরীক্ষার্থীর তুলনায় ছাত্রী-পরীক্ষার্থী 13% বেশি

এসবিবি : জন্মহার কম তাই কমেছে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা। সোমবার এমন ধারনার কথাই জানালো মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার, 12 ফেব্রুয়ারি থেকে। এবছর ছাত্র- পরীক্ষার্থীর তুলনায় ছাত্রী-পরীক্ষার্থীর সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। 4লক্ষ 61 হাজার ছাত্র এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসছে। ওদিকে ছাত্রী-পরীক্ষার্থীর সংখ্যা 6 লক্ষ 3 হাজার 311 জন। ছাত্র-পরীক্ষার্থীর সংখ্যা 43.35 শতাংশ, সেখানে ছাত্রী -পরীক্ষার্থী 56.65 শতাংশ। অর্থাৎ ছাত্রী সংখ্যা বেড়েছে 13.03 শতাংশ। প্রধান পরীক্ষকের সংখ্যাও বেড়েছে 500 জন।

আরও পড়ুন-রাজধানীতে পুলিশের জালে 5 ‘মোস্ট ওয়ান্টেড দুষ্কৃতী

মোবাইলে কারচুপি আটকানোর জন্য পর্ষদ এবার কড়া পদক্ষেপ করেছে। পরীক্ষাকেন্দ্রে
টিচিং স্টাফদেরও মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। মোবাইল শুধুমাত্র সেক্রেটারি- ইনচার্জ, ভেনু-ইনচার্জ, প্রধান শিক্ষক সহ পাঁচজন ব্যবহার করতে পারবেন। এর আগে শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা দেখে এবছর প্রশ্নপত্র পরীক্ষা হলেই খোলা হবে । প্রশ্নপত্র সিলড অবস্থায় পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছবে সকাল সাড়ে দশটায়। পরীক্ষা হলে সিলড প্যাকেট খুলবে 11.35 মিনিটে। পরীক্ষার স্বচ্ছতা সুনিশ্চিত করতেই এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
পরীক্ষা সংক্রান্ত কোন সমস্যা হলে ছাত্র-ছাত্রী বা অভিভাবকরা পর্ষদের কন্ট্রোল রুমের নির্দিষ্ট নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন।

আরও পড়ুন-ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ভষ্মীভূত প্লাস্টিক চেয়ার কারখানা, দমকলের 25 ইঞ্জিন

নম্বর গুলি হল- 03323213892 এবং 03323592278। লাইন খোলা থাকবে পরীক্ষার শেষ দিন, 22 ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। অসুস্থদের জন্য রাইটারের ব্যবস্থা থাকবে। যদি কেউ হাসপাতালে ভর্তি থাকে, তবে সেই পরীক্ষার্থীদের জন্য অন লাইনের ব্যবস্থা থাকবে বলে জানিয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

আরও পড়ুন-রাহুল, মনমোহন, ডেরেক, ফারুক, ফের বিরোধী ঐক্য চন্দ্রবাবুর অনশন মঞ্চে