ঘুমের মধ্যেই মৃত্যু ইংরেজ বিশ্বকাপারের

এসবিবি,স্পোর্টস: 1966 সাল। সেবার ফুটবল বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। সেমিফাইনালের আগে নিজেদের জালে একটা বলও জড়াতে দেননি ব্রিটিশ গোলরক্ষক গর্ডন ব্যাঙ্কস। কিন্তু 81 বছর বয়সে এসে নিজের জীবনকে আর ডিফেন্ড করতে পারলেন না কিংবদন্তি বিশ্বকাপার। চিরদিনের জন্য চোখ বুজলেন ঘুমের মধ্যেই।

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের বছর ছয়েক পরেই এক দুর্ঘটনায় একটি চোখ হারাতে হয়েছিল গর্ডনকে। ফুটবলকে সে সময়ে বিদায় জানাতে হলেও ততদিনে বিশ্ব ফুটবলের কিংবদন্তিদের তালিকায় লেখা হয়ে যায় এই ইংরেজ গোলরক্ষকের নাম। ওই দুর্ঘটনার দু’বছর আগে ইংল্যান্ডের জার্সিতে শেষ বিশ্বকাপটি খেলেছিলেন গর্ডন। সেবার ব্রাজিল বনাম ইংল্যান্ড ম্যাচে দুরন্ত নজির সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। পেলের এক দুরন্ত হেড অবিশ্বাস্য দক্ষতা বাঁচিয়েছিলেন ব্রিটিশ গোলরক্ষক। হেড দেওয়ার পরে বলটি গোলমুখে যাচ্ছিল। পেলে ভেবেছিলেন, হয়তো গোল হয়ে গিয়েছে। শুরু হয়ে যায় ব্রাজিলিয়ান সেলিব্রেশনও। কিন্তু নিদারুণ দক্ষতায় শেষ মুহূর্তে দু’আঙুলে টোকা দিয়ে বলটি ক্রসপিসের উপর দিয়ে বাইরে বের করে দেন গর্ডন। “গুড সেভ” বলে কিংবদন্তি গোলরক্ষকের পিঠ চাপড়ে দিয়ে যান ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে।

ফুটবল ক্যারিয়ারে ছ’বার ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছিলেন গর্ডন সাহেব। ক্লাব ফুটবলেও দক্ষতার পরিচয় রেখে গিয়েছেন। লেস্টার সিটি, স্টোক সিটি-র মতো ক্লাবগুলির জার্সিতে দাপিয়ে খেলেছেন গর্ডন ব্যাঙ্কস। কিংবদন্তি গোলরক্ষকের মৃত্যুতে শোকের ছায়া বিশ্ব ফুটবলে।