দিল্লির প্রশাসনিক কর্তৃত্ব নিয়ে সুপ্রিম-ধাক্কা খেলেন কেজরি

এসবিবি : শীর্ষ আদালতে ধাক্কা খেলেন কেজরিওয়াল।

আরও পড়ুন – রাহুল গান্ধী LIVE

দিল্লি’র প্রশাসনিক কর্তৃত্ব কার? এই মামলায় বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কাই খেলো অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির সরকার৷
কেন্দ্র বনাম দিল্লি সরকার মামলার এদিনের শুনানিতে ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দিল, অ্যান্টি-কোরাপশন ব্যুরো থাকবে লেফটেন্যান্ট গভর্নরের হাতেই৷ লেফটেন্যান্ট গভর্নরের হাতে থাকার অর্থ‌ কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ থাকা৷ আমলা বদলিও দেখবে কেন্দ্র৷ এর পাশাপাশি কোর্ট জানিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য মামলাটি পাঠানো হয়েছে তিন বিচারপতির বিশেষ বেঞ্চে৷ সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, দিল্লি সরকারের এগজিকিউটিভ পাওয়ার সব ক্ষেত্রেই বাড়ানো হচ্ছে তবে গ্রেড ওয়ান, গ্রেড টু আমলার বদলি দেখবে কেন্দ্র৷ গ্রেড থ্রি, গ্রেড ফোর আমলার বদলি থাকবে দিল্লি সরকারের হাতে৷ সরকারি আইনজীবী নিয়োগ করবেন লেফটেন্যান্ট গভর্নর। জমি, পুলিশ ও জনগণের স্বার্থে কোনও নির্দেশের দায়িত্ব থাকবে লেফটেন্যান্ট গভর্নরের হাতে৷ অর্থাত্‍‌ আমলা বদলি নিয়ে কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারের মধ্যে দায়িত্ব ভাগাভাগি করে দিল সুপ্রিম কোর্ট৷
রায় শোনানোর সময় বিচারপতি এ কে সিকরি জানান, সহসচিব ও তাঁর উপর পর্যায়ের আমলাদের বদলির কর্তৃত্ব থাকবে লেফটেন্যান্ট গভর্নরের হাতে৷ বাকি অফিসাররা দিল্লি সরকারের আওতায় পড়বেন৷ লেফটেন্যান্ট গভর্নরের কর্তৃত্বে থাকছে অ্যান্টি-কোরাপশন ব্যুরো-ও৷
দেশের রাজধানীর প্রশাসনিক কর্তৃত্ব কার হাতে থাকবে, তা নিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকারের সঙ্গে লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বাইজল ও তাঁর পূর্বসূরি নজিব জঙের সঙ্গে দীর্ঘ দিনের লড়াই চলছে৷

আরও পড়ুন – ফের সন্ত্ৰাসবাদী হানায় রক্তাক্ত ইরান, মৃত 75