গেরুয়া বসনে অর্জুন! শুভেচ্ছা দীনেশের

এসবিবি : জল্পনা ছিলই। এবার পরিস্কার হল। সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মুকুল রায়ের হাত  ধরে বৃহস্পতিবার গেরুয়া শিবিরে নাম লেখালেন ভাটপাড়ার তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক অর্জুন সিং। তবে নতুন করে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। তবে কি বারাকপুরে বিজেপির প্রার্থী হতে পারেন অর্জুন সিং?  ঠিক এই প্রসঙ্গেই ওই কেন্দ্রে অর্থাৎ বারাকপুর কেন্দ্রের তৃণমূলের দু’বারের জয়ী সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর জয় প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

আরও পড়ুন-বাবার হাত ধরে এবার কি বিজেপিতে শুভ্রাংশু? যা বললেন মুকুল পুত্র

একসময়ের সতীর্থের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কি পিছিয়ে যাবেন দীনেশ বাবু? এই উত্তর যদিও মিলমে 23 মে নির্বাচনের ফলাফলে। তবে দীনেশবাবুকে  প্রশ্ন করা হয় একসময়কার সঙ্গী নির্বাচনের মুখে দল পরিবর্তন করলেন। যোগ দিলেন গেরুয়া শিবিরে কী বলবেন? দুঁদে এই রাজনৈতিক নেতা যদিও কোনও সমালোচনায় যেতে চাননি। তিনি উত্তরে বলেন, “ওকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।” তবে নাম করে অবশ্য তিনি এও বলেন যে, “সুবিধাবাদীদের সবাই চেনে। কে এল কে গেল তাতে কিছু আসে যায় না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি বারাকপুরের মানুষের আস্থা আছে।”

আরও পড়ুন-পাঁচজনই প্রার্থী এবারও! তাহলে মমতা সেদিন কেন বলেছিলেন আগে জানলে ওঁদের প্রার্থী করতাম না?

প্রসঙ্গত, দীনেশ ত্রিবেদী এবং দলের অভিমানী বিধায়ক অর্জুন সিংকে ডেকে নবান্নে আলোচনা করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তবুও দলত্যাগ করলেন তৃণমূলের 30 বছরের সঙ্গী অর্জুন সিং। নির্বাচনের আগে জোড়াফুলে এই ভাঙন যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আরও পড়ুন-অর্জুনের লক্ষ্যভেদ! মুকুলের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান হলো বলে