প্রায় 50 জন কাউন্সিলর নিয়ে আজই বিজেপিতে যাচ্ছেন দাপুটে অর্জুন সিং

এসবিবি : সলতে পাকানোর পর্ব শেষ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে উত্তর 24 পরগনার বিভিন্ন পুরসভার প্রায় 50 জন নির্বাচিত তৃণমূল কাউন্সিলরকে সঙ্গী করে আজ, বৃহস্পতিবার বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলের ডাকাবুকো বিধায়ক অর্জুন সিং। অর্জুন বুধবার রাতেই উড়ে গিয়েছেন দিল্লি। বিজেপি আশ্বাস দিয়েছে, দলবদলের পর শাসক দলের ‘হামলা’-র আশঙ্কা দূর করতে শুক্রবার থেকেই অর্জুন সিংকে দেওয়া হবে ওয়াই ক্যাটাগরির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা।
গত মঙ্গলবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিংয়ের। সে দিন দিল্লিতে তৃণমূল ও সিপিএমের দুই বিধায়ক এবং তৃণমূলেরই এক বহিষ্কৃত সাংসদ বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় পিছিয়ে দেওয়া হয় অর্জুনের বিজেপি-যোগপর্ব। বৃহস্পতিবারই যে তিনি শিবির বদল করতে চলেছেন, সেকথা তৃণমূল শিবিরেও পৌঁছে গিয়েছে। বুধবার দলনেত্রীকে সম্ভবত সে কারনেই বলতে শোনা যায়, যারা বিজেপিতে যেতে চান, তাঁদের মুক্তি দেওয়া হলো।
অর্জুন সিং-এর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার বিষয়টি এতদিন জল্পনার স্তরে ছিলো, এবার বাস্তবের দিকেই এগোচ্ছে।
অর্জুনের ক্ষোভ সামাল দিতে তাঁকে নবান্নে ডেকে মুখ্যমন্ত্রী নাকি বলেছিলেন,লোকসভা ভোট মিটে গেলে তাঁকে মন্ত্রিত্ব দেওয়া হবে। কিন্তু সম্ভবত এতে চিঁড়ে ভেজেনি। বুধবার কালীঘাটে মমতা বলেন, “দু-জন প্রার্থী হওয়ার জন্য খুব লোভ করেছিল। কারা তাঁদের নিল, তাতে কিছু যায়-আসে না”। এর পরে আর কালক্ষেপ করতে চাননি অর্জুন। বুধবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদই দিল্লিগামী বিমান ধরেন অর্জুন সিং। জানা গিয়েছে, অর্জুনের পাশে আছেন ভাটপাড়ার পুরসভার 28 জন কাউন্সিলর, হালিশহর পুরসভার 11 জন কাউন্সিলর, নৈহাটির 6 জন কাউন্সিলর এবং পানিহাটি ও খড়দহ পুরসভার একাধিক কাউন্সিলর।