মমতার ‘মা-মাটি-মানুষ’-এর তিনটি ‘M’ এখন “MONEY-MONEY-MONEY”

এসবিবি :  জল্পনাই শেষ পর্যন্ত বাস্তবের রূপ নিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা মত ঝাড়খন্ড নয়, ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং উড়ে গিয়েছিলেন দিল্লি। রাজ্য ও জাতীয় রাজনীতিতে গতকাল রাত থেকেই যা চর্চিত হচ্ছিল। লোকসভার টিকিট না পেয়ে শেষ পর্যন্ত বিজেপিতেই যোগ দিলেন অর্জুন সিং। আর অর্জুনের হাত ধরেই সফল হল সুযোগ সন্ধানী মুকুল রায়ের লক্ষ্যভেদ। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে মুকুল রায় ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়র উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করলেন তিনি। অর্জুনই যে ব্যারাকপুরের বিজেপির প্রার্থী হতে চলেছে তা নিশ্চিত।

আরও পড়ুন –11 আসনে কংগ্রেস, 20 আসনে RJD, আসন-রফা চূড়ান্ত বিহারে

দলে যোগদানের সময় অর্জুন সিং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কট্টর সমালোচনা করেন। বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে  অর্জুন বলেন, “ 30 বছর আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাজ করেছি। কিন্তু আর নয়। দেশের স্বার্থের বিরুদ্ধে গিয়ে যখন তিনি কথা বলছেন সেটা খুবই বেদনাদায়ক। জঙ্গি হামলায় আমাদের 42 জন সেনা প্রাণ হারিয়েছেন। যাঁদের মৃতদেহ সত্কার করার মত শরীরের নূন্যতম অস্তিত্বও পাওয়া যায়নি। আর তাঁদের নিয়েই কিনা মুখ্যমন্ত্রী বিষ্ময়কর মন্তব্য করছেন। যখন গোটা দেশ কাঁদছে তখন মুখ্যমন্ত্রী বায়ুসেনার পাল্টা হামলায় জঙ্গি নিকেশের হিসাব চাইতে ব্যস্ত। ভারতীয় সেনাদের উপর প্রশ্ন তুলছেন মমতা। এই দলে আর থাকা যায় না। এই দলের সঙ্গে আর কাজ করা যায় না।“

আরও পড়ুন –আজই সম্ভবত বিধায়ক পদে ইস্তফা দেবেন চার তৃণমূল প্রার্থী

এখানেই থেমে থাকেননি অর্জুন। তিনি এবার সরাসরি তৃণমূলের দুর্নীতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। বলেন, “মমতার মা-মাটি-মানুষের তিনটি M এখন MONEY-MONEY-MONEY শব্দে রূপান্তরিত হয়েছে। দুর্নীতিগ্রস্তদের আখড়া হয়েছে তৃণমূল। অথচ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একটা সময় বামপন্থীদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলাম। কিন্তু এমন দিন দেখতে হবে তখন বুঝতে পারিনি।”

আরও পড়ুন –পুলিশ-পেটানোর হুমকি, আদালতে তলব লকেট চট্টোপাধ্যায়কে

বুধবার রাতে দিল্লি পৌঁছনোর পর  এদিন সকালে সেখানে  মুকুল রায়ের বাড়িতে যান অর্জুন সিং। তাঁদের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ বৈঠক হয়। তারপর সেখান থেকে সোজা তাঁরা চলে যান বিজেপির সদর দফতরে। সেরে ফেলেন দলবদল। দিল্লি যাওয়ার আগে গতকাল  ফোনেও মুকুলের সঙ্গে বেশকিছুক্ষণ কথা হয়েছিল অর্জুনের। তখনই বোঝা গিয়েছিল ব্যারাকপুর আসলে প্রার্থী হওয়ার শর্তেই বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন অর্জুন।

এদিকে, ব্যারাকপুরের তৃণমূল প্রার্থী দিনেশ ত্রিবেদী অর্জুন প্রসঙ্গে বলেন, ” বেশি কিছু বলবো না। ওর প্রতি শুভেচ্ছা রইলো। গণতন্ত্রে মানুষই শেষ কথা বলে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মা-মাটি-মানুষের উপর জনগণের ভরসা আছে।”

আরও পড়ুন –রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী আসছে শুক্রবার, রুটমার্চও শুরু কাল থেকেই