অর্জুন সিং-এর প্রভাব কমাতে একাধিক পদক্ষেপ

এসবিবি : দল ছেড়েছেন অর্জুন সিং। শুরু হয়েছে ভাটপাড়ার বিধায়কের ‘ডানা কাটা’-র প্রস্তুতি।
শাসক দল বা প্রশাসন কয়েক দফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে এ বিষয়ে। ভোট প্রচারের ধুম লাগার আগেই রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক পদক্ষেপগুলি পর্যায়ক্রমে সব সেরে ফেলতে চাইছে তৃণমূল। আপাতত ঠিক হয়েছে :

● ইতিমধ্যেই 6 বছরের জন্য অর্জুন সিং-কে সাসপেন্ড করা হয়েছে তৃণমূল দল থেকে।

● দলত্যাগী অর্জুন সিং-এর বিধায়কপদ খারিজ করার জন্য কয়েক দিনের মধ্যেই বিধানসভার অধ্যক্ষকে চিঠি দিচ্ছে তৃণমূল।

আরও পড়ুন –রাজ্যে 22 হাজার বুথ ‘স্পর্শকাতর’,খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন

● 35 কাউন্সিলরের ভাটপাড়া পুরসভার 1 জনের মৃ্ত্যু হয়েছে। বাকি 34 জনের কাউন্সিলরের 33 জন তৃণমূলের, 1 জন সিপিএমের। ওই বাম কাউন্সিলার এখন তৃণমূলে। বিজেপি’র দাবি, 33জনের মধ্যে 22 জনই অর্জুন সিং-এর সঙ্গে। সেক্ষেত্রে 11 জন কাউন্সিলর নিয়ে ভাটপাড়া পুরসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাবে তৃণমূল। ফলে ভাটপাড়া পুরসভা হতে চলেছে রাজ্যের প্রথম বিজেপি নিয়ন্ত্রিত পুরসভা। কিন্তু তৃণমূলের দাবি, তেমন কোনও পরিস্থিতিই তৈরি হবেনা।

● ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান পদ থেকে অর্জুন সিং-কে সরাতে অনাস্থা প্রস্তাব আনছে তৃণমূল।

● ভোটের জন্য অনাস্থা আনা না গেলে পুরবোর্ড ভেঙে বসানো হবে প্রশাসক।

আরও পড়ুন –ঘাটালের বাম প্রার্থীকে নজিররবিহীন সৌজন্য দেবের! প্রতিবেদনটি পড়লে আপনিও সাধুবাদ দেবেন

● ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান হিসাবে অর্জুন সিং যে সব আর্থিক অনিয়ম হয়েছে, সেগুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশে অভিযোগও দায়ের হতে পারে।

● টিটাগড় থানায় শুক্রবারই একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে অর্জুন সিং-এর বিরুদ্ধে।

● কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া ধরমপাল গুপ্তাকে চেয়ারম্যান করে ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের 12 জনের নতুন নির্বাচনী কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিই ভাটপাড়া কেন্দ্রে নির্বাচন পরিচালনা করবে।

● অর্জুন সিং-এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ধামাচাপা থাকা অভিযোগের ফাইল চালু করা হচ্ছে।

● অর্জুন সিং-ঘনিষ্ঠদের বিরুদ্ধেও বিভিন্ন থানায় যে সব অভিযোগ আছে, সে সব সামনে আনার নির্দেশ জারি হচ্ছে।

লোকসভা ভোটের আগেই অর্জুন সিং-এর প্রভাব হ্রাস করা যে প্রধান কাজ, সেটা স্পষ্ট হয়েছে তৃণমূলের পরবর্তী ‘কর্মসূচি’ দেখে।

আরও পড়ুন –বারাকপুরের জল মাপতে আলিমুদ্দিনের কৌশলি পদক্ষেপ