অর্জুনের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনছে তৃণমূল

এসবিবি : অর্জুন সিং বিজেপিতে যোগ দিতেই ভাটপাড়া তৃণমূল পুরবোর্ডের ভবিষ্যত নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল। অর্জুন অনুগামী 22 কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন বলে জল্পনা চলছিল। 35 ওয়ার্ডের ভাটপাড়া পুরসভায় সেক্ষেত্রে তৃণমূল কংগ্রেসের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর সম্ভাবনা জোরালো হয়ে উঠেছিল।বিধানসভায় তৃণমূল জেলা সভাপতি ও খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সাফ জানিয়ে দেন যে 22 জন কাউন্সিলরই তাদের পক্ষে রয়েছে। এই কাউন্সিলররা পুরসভায় বর্তমান চেয়ারম্যান অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে সোমবারই মহকুমাশাসককে অর্জুনের বিরুদ্ধে অনাস্থার চিঠি দিয়েছেন।এমনকি কাউন্সিলরদের কলকাতায় ডেকে পাঠান ফিরহাদ হাকিম।বিধানসভায় ওই কাউন্সিলরদের সঙ্গে ফিরহাদ হাকিম ও জোতিপ্রিয় মল্লিক বৈঠক করেন।এরপরই অনাস্থা আনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।এরপর 15 দিনের মধ্যে মিটিং ডাকবেন মহকুমাশাসক। তারপর ভোটাভুটির মাধ্যমে নতুন চেয়ারম্যান ঠিক করা হবে।

আরও পড়ুন –উত্তর কলকাতায় সাধনকে বিজেপিতে চাইছেন কে?

যদিও খোদ অর্জুন সিং তৃণমূলের এই দাবি আমল দিতে রাজি নন।বরং তিনি অভিযোগ করেন, টাকা দিয়ে কাউন্সিলর কিনছে তৃণমূল। 40-45 লাখ টাকা দিয়ে কাউন্সিলর কিনছে।অর্জুনের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।অর্জুন আরও বলেন, ধাদ্য দফতরের দুর্নীতির সব প্রমাণ আছে, সময়েই ঝুলি থেকে সেসব বের হবে।অনাস্থা আনুক, ভোট হোক, আমি বুঝে নেব। ভাটপাড়া পুরসভা, ভাটপাড়া বিধানসভা, এমনকি ব্যারাকপুর লোকসভা সব বিজেপির থাকবে।
প্রসঙ্গত, ভাটপাড়া পুরসভায় মোট আসনসংখ্যা 35। এই 35 জন কাউন্সিলরের মধ্যে এক জনের মৃ্ত্যু হয়েছে। বাকি 34 জন কাউন্সিলরের মধ্যে 33 জন-ই তৃণমূলের। একজন কংগ্রেসের কাউন্সিলর।

আরও পড়ুন –রাজ্যের সব বুথেই আধাসেনা, বাহিনী আসবে মোট 700 কোম্পানি