তৃণমূলের বি-টিম হিসেবেই এবার ভোট ময়দানে সিপিএম, অভিযোগ বিজেপির

এসবিবি : এ রাজ্যের ভোটে সিপিএম কি তৃণমূলের ‘বি-টিম’ ?

বিজেপি’র প্রচার কিন্তু সেই রকমই। গেরুয়া শিবিরের বক্তব্য, যেসব আসনে বিজেপির কাছে তৃণমূলের পরাজয় নিশ্চিত, সেখানে বি-টিম হিসাবে মাঠে নেমে তৃণমূল-বিরোধী ভোট কেটে জোড়াফুলের হেরে যাওয়া আটকানোর কাজে নেমেছে সিপিএম। এজন্য সব দিক থেকে তৃণমূলের সাহায্যও পাচ্ছে আলিমুদ্দিন।

আরও পড়ুন –ভোটের পর প্রধানমন্ত্রী নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে: মমতা

সিপিএম বা কংগ্রেস নয়, বঙ্গে বিজেপিই এবার তৃণমূলের প্রবল প্রতিপক্ষ। বেশিরভাগ আসনেই তৃণমূলকে কঠিন লড়াইয়ে ফেলেছে বিজেপি। বিজেপিও আশাবাদী, এবার রাজ্যে অভূতপূর্ব ফল হবে। সেই পরিস্থিতিতে এই নির্বাচনে সিপিএমের ভূমিকা যথেষ্টই সন্দেহজনক বলে বিজেপি মনে করছে। পদ্ম- শিবিরের অভিমত, রাজ্যে এমন একাধিক আসন আছে, যেখানে এবার সামান্য ব্যবধানে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে। এসব ক্ষেত্রে বাম-ভোট কিছুটা বাড়লেই তৃণমূল প্রার্থীর জয় নিশ্চিত। এ ধরনের আসনগুলিতেই তৃণমূল-বিরোধী ভোট কাটার জন্য সিপিএমকে ব্যবহার করছে রাজ্যের শাসক দল। পরাজয়ের আশঙ্কায় ভীত তৃণমূল সিপিএমকে মাঠে নামিয়েছে তাদের ‘বি-টিম’ সাজিয়েই। সিপিএমও জোড়াফুল-প্রার্থীকে জিতিয়ে দেওয়ার কাজে বেশ কিছু আসনে সক্রিয় হয়েছে। এই কৌশলকে হাতিয়ার করেই তৃণমূল তাদের ‘বি-টিম’ হিসাবে সিপিএমকে প্রোমোট করছে বলে বঙ্গ-বিজেপির নিশ্চিত ধারনা। বিজেপির এই ধারনা কতখানি ঠিক বা আদৌ ঠিক কিনা, তা বোঝা যাবে 23মে ফলপ্রকাশের পরই।

আরও পড়ুন –ক্ষমতায় এলে 2020 সালের মধ্যে 22 লক্ষ সরকারি চাকরি, ট্যুইটে জানালেন রাহুল গান্ধী