রামনবমী উদযাপনে এসে শাসকদলকে বিঁধলেন অনুপম হাজরা

এসবিবি: আজ শনিবার রামনবমী উদযাপনে যাদবপুরের 8B বাসষ্ট্যান্ডে মিছিল করেন যাদবপুরের লোকসভা বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরা। এই মিছিলের বিষয়ে তিনি বলেন, “একজন সাধারণ মানুষ হিসেবেই সাধারণ মানুষকে নিয়ে ধর্মীয় উৎসব পালন করা। আমি যদি প্রার্থী নাও হতাম তবুও একজন অধ্যাপক কিংবা সাধারণ মানুষ হিসেবে এই উৎসব পালন করতাম। এখানে কোন নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের ব্যানার নেই। যদিও শাসকদল বরাবরই ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে। এর আগে শহরের বিভিন্ন জায়গায় মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর নমাজ পড়া ছবি দেখা যেত। ধর্ম নিয়ে সস্তার রাজনীতি তৃণমূল করে।” পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে অস্ত্রের ভূমিকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “মা দূর্গার হাতেও অস্ত্র থাকে, তবে সেটা ধ্বংসের জন্য নয়, রক্ষার প্রতীক। ভারতীয় বিভিন্ন ধর্মের এই অস্ত্র আসলে ধর্মীয় প্রতীক। আমাদের এই রামনবমী উদযাপন সম্পূর্ণ নিরস্ত্র মিছিল। অস্ত্র নিয়ে কিংবা বোমাবাজি,তোলাবাজির রাজনীতি শাসকদলের কালচার। এখানে সাধারণ মানুষ ধর্মীয় ভাবাবেগ থেকেই রামনবমী উদযাপন করছে।”

আরও পড়ুন –মোদির বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ, রাহুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে বিজেপি 

এদিনের এই মিছিলের বাইক নিয়ে করার কথা ছিল। কিন্তু প্রশাসনের বাধার জন্য বাইকের অনুমতি মেলেনি। সে বিষয়ে তিনি বলেন, “পুলিশ আসলে তৃণমূলের ক্যাডার। এখানে পুলিশ সার্ভিস করে না, তৃণমূল সার্ভিস করে। এর আগেও বিভিন্নভাবে ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে আটকে দেওয়া হয়েছে। আজ এখানে আসতে চারবার পুলিশ আমার গাড়ি আটকছে।” প্রসঙ্গত শুক্রবার মুকুন্দপুরে জনসংযোগেও তাঁকে বাধা দেওয়া হয়। সেই নিয়ে তিনি পূর্ব যাদবপুর থানায় ধরনায়ও বসেছিলেন।

ছবি : বিকাশ মণ্ডল

আরও পড়ুন –রাম নবমীর অস্ত্র মিছিল ইস্যুতে রাজ্য প্রশাসনকে ফ্রি-হ্যান্ড দিলেন স্পেশাল পুলিশ পর্যবেক্ষক