স্বস্তি পেতে এবার বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়কে হাতিয়ার করলেন রাজীব কুমার

এসবিবি : বিজেপির দুই কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং মুকুল রায়কে হাতিয়ার করেই সুপ্রিম কোর্টে আইনি লড়াইয়ে গেলেন কলকাতার ভূতপূর্ব নগরপাল রাজীব কুমার এবং রাজ্য। বিজেপির এই দুই নেতাকে সামনে রেখে সুপ্রিম কোর্টে রাজীবের হয়ে যুক্তি দিতে চলেছে রাজ্য সরকারও।

আরও পড়ুন –বাবুলের সামনেই জিতেন্দ্রকে মেরে হাসপাতালে পাঠাল বিজেপি কর্মীরা! উত্তপ্ত আসানসোল

2018-র অক্টোবরে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি টেলিফোন-সংলাপের অডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছিল। সেই অডিও টেপে শোনা গিয়েছিল, রাজ্যের 4 IPS অফিসারকে ‘ভয়’ দেখানোর কথা। বিজেপি-বিরোধী তথা রাজ্যের শাসক দলের তরফে সে সময়
অভিযোগ উঠেছিল, এক জনের কণ্ঠস্বরের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের ভারপ্রাপ্ত বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের, অন্যজনের সঙ্গে মুকুল রায়ের গলার মিল রয়েছে। কৈলাস এ ধরনের কথাবার্তা অস্বীকার করেন। আর মুকুল রায় বলেন, দলের কোনও নেতার সঙ্গে কথা হতেই পারে। এবার এই অডিও টেপকে সামনে এনে রাজীব কুমারকে ‘রক্ষা’ করতে চাইছে রাজ্য সরকার।

প্রসঙ্গত, রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করে জেরা করার অনুমতি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে CBI আর্জি জানিয়েছিলো। সুপ্রিম কোর্ট সেদিনই এ বিষয়ে নিজের বক্তব্য জানানোর নির্দেশ দেয় রাজীব কুমারকে। সেই নির্দেশানুসারেই আজ, শনিবার রাজীব কুমারের হলফনামা জমা পড়তে চলেছে শীর্ষ আদালতে। আর সেখানেই কৈলাস-মুকুলকে টেনে এনেছেন রাজ্য সরকার তথা রাজীব কুমার। এই তথ্য পেশ করে রাজ্য আদালতে বোঝাতে চাইছে, CBI রাজনৈতিক উদ্দেশ্য কাজ করছে। এদিকে, রাজীব কুমারকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আর্জি জানানোর কারন হিসাবে CBI নিজেদের হলফনামায় বলেছে, তিনি শিলংয়ে জেরার মুখোমুখি হলেও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গিয়েছেন।

আরও পড়ুন –মোদির বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ, রাহুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে বিজেপি

ওদিকে, রাজীব কুমার তথা রাজ্য নিজেদের হলফনামায় এবার বিজেপির দুই নেতার নাম এভাবে টেনে আনায় রাজীব কুমারের বিপদ বাড়লো বলেই মনে করছে কলকাতা হাইকোর্টের একাধিক বিশিষ্ট আইনজীবী। তাদের যুক্তি, এই দুই নেতাও এবার আদালতে নিজেদের বক্তব্য পেশ করার সুযোগ পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে তাঁরা রাজীব কুমারের বিরুদ্ধেই সরব হতে পারেন। এমনকী, বাড়তি কিছু তথ্যও পেশ করতে পারেন। তাতে রাজীবের অস্বস্তিই বৃদ্ধি পাবে বলে ধারনা আইনি মহলের।

আরও পড়ুন –রামনবমী উদযাপনে এসে শাসকদলকে বিঁধলেন অনুপম হাজরা