ভোটের জন্য ‘বাঙালি’ হচ্ছে বিজেপি, নববর্ষে ভাবমূর্তি বদলাতে বিশেষ নির্দেশ

এসবিবি : বিজেপি এখনও বাঙালিদের দল হতে পারেনি। বঙ্গ-বিজেপির সর্বাঙ্গেই ভিনরাজ্যের চিহ্ন স্পষ্ট। এ রাজ্যের বিজেপি সম্পর্কে বিরোধীদের এমনই অভিযোগ।

এই ছাপ গা থেকে তুলে ফেলতে দিল্লি থেকে বাংলা-নববর্ষকে হাতিয়ার করার নির্দেশ এসেছে রাজ্য বিজেপির কাছে। দলের শীর্ষমহল একাধিক ‘অবশ্য-পালনীয়’ নির্দেশ পাঠিয়েছে রাজ্য শাখাকে। বাঙালিদের দল হয়ে উঠতে তাই সোমবার দিল্লির নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে মানার চেষ্টা করছে রাজ্য-বিজেপি। দিল্লি বলেছে, দলের শীর্ষনেতা বা প্রার্থী ভয়েস মেসেজের মাধ্যমে ভোটারদের নববর্ষের শুভেচ্ছাবার্তা পাঠাবেন। ভোটারদের মোবাইলে এই বার্তা পাঠাবেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রার্থীরা।

আরও পড়ুন- ঘোর বিপাকে মুকুল রায়! “চাণক্য” এবার কী করবেন?

সোমবার দিনভর বিজেপি নেতানেত্রীরা যখন প্রচার করবেন, তখন তাঁদের পোশাকেও যেন বাঙালিয়ানার ছাপ থাকে।ড্রেস-কোডও ঠিক করে দিয়েছে দিল্লি। বিজেপি’র শীর্ষ নেতৃত্ব প্রার্থীদের নির্দেশ দিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যায় নিজেদের কেন্দ্রে একাধিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করতে হবে। এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই নববর্ষ উদযাপন করতে হবে। রামনবমীর মিছিলে অস্ত্রের ঝংকার শুনিয়েছে বিজেপি এবং সঙ্ঘ পরিবারের একাধিক শাখা সংগঠন। কিন্তু বিজেপির এই মিছিল বাঙালি ভোটারদের ছুঁতে পারেনি। বরং
উল্টো ভাবছে, বাংলায় হিন্দি-কালচার আমদানি করতে চাইছে বিজেছি।
রামনবমী যে বাঙালির মনে আদৌ দাগ কাটেনি, তা বুঝেই দিল্লির বিজেপি বাঙালিদের মন জয় করার উদ্যোগ নিয়েছে। ভোট বড় বালাই, তাই বিজেপি এখন ‘বাঙালি’ হচ্ছে।