পয়লা বৈশাখে নিজের গ্রামের বাড়ির কালী মন্দিরে পুজো দিলেন মিমি

এসবিবি : এবার তিনি ঐতিহ্যশালী যাদবপুর কেন্দ্রে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতীকে লোকসভা ভোটের লড়াইয়ের ময়দানে নেমেছেন। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করার পর থেকেই গোটা যাদবপুর কেন্দ্রে চষে বেড়াচ্ছেন টলিউডের এই প্রথমসারির অভিনেত্রী। দিন-রাত এক করে টানা প্রচার চালিয়েছেন মিমি। এই প্রচন্ড গরমেও প্রচারে খামতি বা ক্লান্তি, কোনওটিই দেখা মেলেনি তাঁর মধ্যে। তবে, বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনটি একটু অন্যভাবে কাটালেন তৃণমূলের ‘গ্ল্যামার কুইন’। রাজনীতি ও যাদবপুর ছেড়ে এখন তিনি উত্তরবঙ্গে জলপাইগুড়িতে তাঁর গ্রামের বাড়িতে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। আর পাঁচটা সাধারণ মেয়ের মতোই গ্রামে নিজের পাড়ায় পয়লা বৈশাখ সেলিব্রেট করলেন তিনি।

গ্রামের বাড়িতে কালী মন্দিরে মায়ের সঙ্গে পুজো দিলেন মিমি

আরও পড়ুন –গতবারের থেকে অনেক বেশি ভোটে জিতবো, দাবি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

নববর্ষে সকাল সকাল  মাকে সঙ্গে নিয়ে রিকশায় চেপে পান্ডাপাড়া কালীবাড়িতে পুজো দিলেন তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী। কিন্তু রিকশায় চেপে কেন ? এক্ষেত্রে কিছুটা নস্ট্যালজিক মিমি। কারণ, এই সেই রিকশা, যার সঙ্গে অভিনেত্রীর অনেকটা স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। আসলে এই রিকশাতে চেপেই ছোটবেলায় স্কুল যেতেন তিনি। যেহেতু তিনি সেলিব্রিটি, সেই সঙ্গে আবার লোকসভার প্রার্থী, খুব স্বাভাবিকভাবেই তাঁকে দেখতে ভিড় জমিয়েছিলেন উৎসাহী জনতা। প্রত্যেককে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

এই সেই রিকশা যাতে চড়ে একসময় স্কুলে যেতেন মিমি

প্রসঙ্গত, শুধু নববর্ষ কাটানোই নয়, পারিবারিক একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই জলপাইগুড়িতে গ্রামের বাড়িতে দিন কয়েকের জন্য গিয়েছেন মিমি। সেই অনুষ্ঠান সেরে ফের কলকাতায় ফিরবেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী। এবং আবারও নেমে পড়বেন ভোট প্রচারে।

আরও পড়ুন –বিশেষ সাক্ষাৎকারে অকপট পার্থ, কী বললেন দেখুন