এবার মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রে জোর লড়াই 4 মুসলিম প্রার্থীর মধ্যে

এসবিবি: অন্য এক কারণে এবার নজর কাড়ছে মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রটি। চার বড় দলের চার প্রার্থীই মুসলিম।  শুধু এ রাজ্যে কেন, দেশের অন্য কোন কেন্দ্রে এমন ঘটেছে, তা বলা মুশকিল।

মুসলিম জনসংখ্যার নিরিখে মুর্শিদাবাদ জেলা গোটা দেশে অন্যতম শীর্ষ জেলা। এই জেলার প্রায় 59লক্ষ বাসিন্দার মধ্যে 40 লক্ষই মুসলিম। মুর্শিদাবাদ, জঙ্গিপুর ও বহরমপুর, এই জেলায় লোকসভার আসন এই 3টি। বহরমপুর ও জঙ্গিপুরে এমন না হলেও মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রে এবার প্রধান 4টি দলই মুসলিম প্রার্থী দিয়েছে মুসলিম ভোট টানার লক্ষ্যে। এমনকী বিজেপিও সেই পথেই হেঁটেছে। মুর্শিদাবাদ আসনে সিপিএমের বিদায়ী সাংসদ বদরুদ্দোজা খান, তৃণমূলের আবু তাহের খান, কংগ্রেসের আবু হেনা এবং বিজেপির হুমায়ুন কবীর লড়ছেন।

আরও পড়ুন –খোলের তালে মিহিদানা খাইয়ে অভিনব প্রচার অনুপমের

চতুর্মুখী এই লড়াইয়ে কে জিতবেন, তা জানা যাবে 23মে। তবে কিছুটা এগিয়ে কংগ্রেসের আবু হেনা।
সিপিএমের দাবি,দলীয় প্রার্থী তথা বিদায়ী সাংসদ বদরুদ্দোজা খান এবারও জিতবেন। 2014-র নির্বাচনে মুর্শিদাবাদ আসনে জিতেই তিনি সাংসদ হয়েছিলেন।সেই নির্বাচনে বদরুদ্দোজা খান পেয়েছিলেন 4 লাখ 26 হাজার 947 ভোট। তাঁর নিকটতম প্রার্থী কংগ্রেসের মান্নান হোসেন পেয়েছিলেন 4 লাখ 8 হাজার 494 ভোট। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী মহম্মদ আলি পান 2 লাখ 89 হাজার 27 ভোট। আর বিজেপি প্রার্থী সুজিত কুমার ঘোষের পক্ষে যায় 1 লাখ 1 হাজার 69 ভোট।

আরও পড়ুন –রাত পোহালেই উত্তরবঙ্গের তিন আকর্ষণীয় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ, তুঙ্গে প্রস্তুতি

গত নির্বাচনের প্রাপ্ত হিসাব খতিয়ে দেখে সিপিএম দাবি করেছে, এবারও তাঁরাই জিতবে। 2014-তে এ রাজ্যে সিপিএমের ঝুলিতে গিয়েছিলো মোট 2টি আসন। তার একটি এই মুর্শিদাবাদ। অন্যটি উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ।

এই কেন্দ্রে এবার জোর লড়াই দেওয়ার পরিকল্পনা তৃণমূলের। সেই লক্ষ্যেই এখানে তৃণমূল প্রার্থী করেছে 4 বার কংগ্রেসের টিকিটে বিধায়ক হয়ে 2018-তে তৃণমূলে যোগ দেওয়া আবু তাহের খানকে। তৃণমূল বলেছে, এই রাজ্যে কংগ্রেস এবং বাম শেষ হয়ে গিয়েছে। এই দুই দলের আর ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি নেই। ফলে কংগ্রেস বা বামকে ভোট দিলে, তা নষ্ট হবে। বিজেপিকে হারিয়ে এই আসনে জিততে সক্ষম একমাত্র তৃণমূল প্রার্থী আবু তাহের খানই। তৃণমূল নেতৃত্বের আশা, মুর্শিদাবাদের মানুষ জোড়াফুলকেই জেতাবেন।

আরও পড়ুন –দেশজুড়ে ধুলোঝড়ের তাণ্ডব, মৃত কমপক্ষে 70

কিন্তু হিসাব বদলে দিয়েছে কংগ্রেস যোগ্য প্রার্থী বাছাই করে।
এবার মুর্শিদাবাদ আসনে কংগ্রেস প্রার্থী দলের প্রবীণ নেতা তথা দীর্ঘদিনের বিধায়ক আবু হেনা। এই জেলা থেকেই তিনি কংগ্রেসের টিকিটে 5 বার বিধায়ক হয়েছেন। রাজ্য মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন। তাঁর বাবা আবদুস সাত্তার ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থ শঙ্কর রায়ের মন্ত্রিসভার সদস্য। মুর্শিদাবাদের প্রবাদপ্রতিম নেতা আবদুস সাত্তার। প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি অধীর চৌধুরি নিশ্চিত, এই জেলার তিন আসনেই বিশাল ব্যবধানে জয়ী হবে কংগ্রেসই। অধীরবাবুর বক্তব্য, বেইমানদের যে মানুষ ঘৃণা করে, তা ভোটের ফল প্রকাশ হলেই স্পষ্ট হবে। মুর্শিদাবাদ আজও কংগ্রেসের ঘাঁটি।

আরও পড়ুন –প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নামে কুরুচিকর মন্তব্য করে বিতর্কে উমা ভারতী, কমিশনে কংগ্রেস

ওদিকে বিজেপিও এবার এই কেন্দ্রে প্রার্থী করেছে এক মুসলিমকেই। গেরুয়া শিবিরের প্রার্থী হুমায়ুন কবীর।এই হুমায়ুন কবীর ইতিমধ্যেই অনেক ঘোরাঘুরি করার পর আপাতত বিজেপিতে। প্রথমে কংগ্রেস করতেন। বিধায়ক হয়েছেন কংগ্রেসের। কংগ্রেসের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তিনি কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন। পেয়ে যান মন্ত্রিত্ব। কিন্তু টিঁকতে পারেননি তৃণমূলে। মন্ত্রী থাকা অবস্থায় উপনির্বাচনে দাঁড়িয়েও কংগ্রেসের কাছে হেরে যান হুমায়ন। তৃণমূলে আর পাত্তা না পেয়ে অগত্যা গত বছর জুন মাসে হুমায়ন কবীর যোগ দেন বিজেপিতে। আর এবার বিজেপি তাঁকেই মুর্শিদাবাদ আসনে প্রার্থী করে দিয়েছে। বিজেপির অঙ্ক, কমিটেড হিন্দু ভোট তো আছেই, পাশাপাশি হুমায়ন কবীরকে সামনে রাখলে মুসলিম ভোটও আসবে। জিতে যাওয়া কোনও বিষয়ই নয়।
এই লক্ষ্য নিয়ে বিজেপি হুমায়ুন কবীরকে দাঁড় করিয়েছে এই আসনে।

আরও পড়ুন –কেন্দ্রের কড়া নির্দেশের পর বাংলাদেশ ফিরে গেছেন অভিনেতা ফিরদৌস

মুর্শিদাবাদ জেলা একসময় কংগ্রেসের দুর্গ থাকলেও ইদানিং একের পর এক বিধায়ক ভাঙ্গিয়ে দুর্বল করেছে কংগ্রেসকে। তবে অধীর চৌধুরি প্রদেশের দায়িত্ব ছেড়ে জেলায় মন দেওয়ায়, ফের জেলার সর্বত্রই মাথাচাড়া দিচ্ছে ‘হাত’। তার ওপর প্রার্থী আবু হেনার বিশ্বাসযোগ্যতা অনেক বেশি।

মুর্শিদাবাদ আসনে 23 এপ্রিল চার মুসলিম প্রার্থীর মধ্যে জোর লড়াই হবে। সেই লড়াইয়ের ফল জানা যাবে 23 মে। সেদিন জানা যাবে, চার মুসলিমের কোনজনকে অধিকতর কাছের লোক ভাবেন এই কেন্দ্রের ভোটাররা।

আরও পড়ুন –কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঝাঁটা হাতে তাড়ার নির্দেশ তৃণমূল নেত্রীর