জোড়া গোল মেসির, ডেভিলস-নিধন করে শেষ চারে বার্সা

এসবিবি, স্পোর্টস : পগবার সেই ‘দুঃসাহসিক’ হুমকিটাই কি লিওনেল মেসিকে আরও বেশি তাতিয়েছিল ?

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে প্রথম লেগের ম্যাচে বার্সার বিরুদ্ধে এক গোলে হারার পরে একটু বেশিই ‘স্টেপ আউট’ করে ফেলেছিলেন ম্যান ইউ তারকা পল পগবা। বলে বসেছিলেন, প্রথম লেগের 1-0 ব্যবধানটি নাকি প্রথমার্ধের খেলা। বার্সেলোনার ঘরের মাঠে গিয়ে ডেভিলসরা নাকি দ্বিতীয়ার্ধের ম্যাচ খেলবে। কিন্তু মঙ্গল-সন্ধ্যায় পগবার সেই হুঙ্কারকে স্পেন থেকে সটান ইংরেজদের বধ্যভূমিতে ফেরত পাঠাতে লিও মেসি গুনে গুনে কুড়ি মিনিট সময় নিলেন।

ন্যু ক্যাম্পে মেসিব্রিগেড আগে থেকেই 1-0 ব্যবধানে এগিয়ে থেকে মাঠে নেমেছিল। আর 90 মিনিট শেষ হতেই তা 4-0 ব্যবধান নিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ চারের সিট ‘কনফার্ম’ করে ফেলল। আর কাতালানদের সেই পথকে একাই যে মসৃণ করে গেলেন বার্সা অধিনায়ক। লিওনেল মেসি ‘বুড়ো’ হয়েছেন টাইপ মন্তব্য যাঁরা করেন, এই ম্যাচের পরে তাঁরা ঠিক কী বলবেন তা শুনতেই আপাতত প্রতীক্ষায় মেসি-অনুরাগীরা। ম্যাচের প্রথমার্ধে 16 ও 20 মিনিটে পরপর দু’টি গোল করেই রেড ডেভিলসদের মেসি বুঝিয়ে দেন, সবুজ গালিচার এ জমি যে বড়ই নিষ্ঠুর। এখনও মেসিময়। শুধু জোড়া গোল করাই নয়, দ্বিতীয়ার্ধের 61 মিনিটে ফিলিপ কুটিনহো যে গোলটি করে যান তার পিছনেও মেসির অবদান কি করে ভুলবে ফুটবল দুনিয়া! আলবার এরিয়াল থ্রু-টা নিখুঁত ভলিতে মেসি সাজিয়ে দিয়েছিলেন ব্রাজিলীয় কুটিনহোকে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গত তিনবার এই কোয়ার্টার ফাইনালেই থেমে গিয়েছিল স্প্যানিশ জায়ান্টদের রথের চাকা। কিন্তু এবার শেষ চারে পৌঁছল বার্সেলোনা, তাও আবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে দুই লেগ মিলিয়ে 4-0 ব্যবধানে হারিয়ে। পগবার নিজের অতি খারাপ পারফরম্যান্স তো বটেই, সঙ্গে আবার স্পেনের বিমানে চাপার আগে কাতালানদের উদ্দেশে তাঁর সেই হুঙ্কার। শোনা যাচ্ছে, ম্যান ইউয়ের বেশ কিছু ফুটবলার মঙ্গল-সন্ধ্যার দুঃস্বপ্নের জন্য পগবাকেই দায়ী করেছেন।

মেসি নিশ্চয়ই এসব দেখছেন, শুনছেন। আর মুচকি হাসছেন।

আরও পড়ুন –মোদির বিরুদ্ধে প্রার্থী হচ্ছেন কলকাতা হাইকোর্টের সেই বিচারপতি