টাকি বয়েজে চালু হল ইংলিশ মিডিয়াম সেকশন

এসবিবি: ইংরেজিতে কথা বলার প্রশিক্ষণ আজ খুব জরুরি। এই তাগিদ থেকেই বাংলা মাধ্যম স্কুল টাকি বয়েজে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছিল প্রাক্তনী ছাত্র সংগঠন “টিব্যাক”। তারাই বেতন দিয়ে স্কুলে নিয়োগ করেছিল ইংরেজি কথোপকথনের শিক্ষিকা।
সেই শুরু। এরপর সেই পদ সরকার অনুমোদন করে।
আর এখন বুধবার উদ্বোধন হল টাকি বয়েজের পুরোদস্তুর ইংলিশ মিডিয়াম শাখা। স্কুলের মির্জাপুর ক্যাম্পাসে বর্ণময় অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে। গত 13 জানুয়ারি টিব্যাকের অনুষ্ঠান থেকে ইংলিশ মিডিয়াম অনুমোদনের কথা ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ঐতিহ্যশালী টাকি বয়েজের মুকুটে যোগ হল নতুন পালক। উত্তর ও মধ্য কলকাতার প্রথম সরকারি স্কুলের ইংলিশ মিডিয়াম চালুর মুহূর্ত থেকেই ভর্তির চাপ তুঙ্গে। কেন ইংরেজি মাধ্যম দরকার, তা বুঝিয়ে বলেন বক্তারা। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্কুলের প্রথম দিনের শিক্ষক ও ছাত্রদের মধ্য থেকে দুই বর্ষীয়ান। বিজ্ঞান সব জরুরি বিষয়ে ইংরেজি শব্দমালায় পঠনপাঠন শুরু হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন –দেশে কর্মহীন 50 লক্ষ, বেকারত্ব বৃদ্ধি 6%, রিপোর্টে বিপাকে মোদি

উপস্থিত ছিলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সহ সচিব পার্থ কর্মকার, প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান কার্তিক মান্না, প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষ,স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অয়ন চক্রবর্তী, সমাজসেবী ও পুরপিতা রাজেশ খান্না, সোমা চৌধুরি, সমাজসেবী পিয়াল চৌধুরি, প্রাক্তন প্রশাসক সনৎ ঘোষ প্রমুখ। টাকির নতুন ভবন তৈরি, কম্পিউটার ল্যাব গঠন, ঠান্ডা জলের মেশিন ও দুঃস্থ ছাত্রদের সাহায্যে মোট 1 কোটি 75 লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য প্রাক্তন ছাত্র প্রাক্তন সাংসদ কুণালকে অভিনন্দন জানান প্রধান শিক্ষক ও বক্তারা।

এদিনের অনুষ্ঠানমঞ্চ থেকে অবসরের মুখে থাকা বিদায়ী প্রধান শিক্ষক পরেশ নন্দকেও সম্বর্ধিত করেন প্রাক্তনী টিব্যাকের সদস্যরা।

ইংরেজিতে রবীন্দ্রসঙ্গীত থেকে শুরু করে ইংরেজি কবিতা ও গানের নানা বৈচিত্রে মাতিয়ে দেয় ছোটরা।

আরও পড়ুন –দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের দিনই রাজ্যে আসছেন কমিশন নিযুক্ত  বিশেষ পর্যবেক্ষক