মমতা কনভয় দেখে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি, চন্দ্রকোণায় গ্রেফতার 3 বিজেপি কর্মী

এসবিবি : মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় দেখে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়ার ‘অপরাধে’ শনিবারই গ্রেফতার করা হলো 3 জনকে। এই 3 জনই বিজেপি কর্মী। এদের একজন বিজেপির যুব মোর্চার নেতা সীতারাম মিদ্দা। অন্য দু’জন, বিজেপি কর্মী সায়ন মিদ্দা ও বুদ্ধদেব দোলুই। সীতারাম চন্দ্রকোণা দক্ষিণ মণ্ডলের বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি। তাঁর বাড়ি রাধাবল্লভপুরে।

পশ্চিম মেদিনীপুর বিজেপির জেলা সভাপতি অন্তরা ভট্টাচার্য কড়া ভাষায় পুলিশের ভূমিকার নিন্দা করে বলেছেন, “জয় শ্রীরাম আমাদের দলের রাজনৈতিক স্লোগান। সেটা তো দলীয় কর্মীরা দেবেই। তার জন্য গ্রেফতার করা হবে?”

শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রোড শো ছিল চন্দ্রকোণায়। রাধাবল্লভপুরে গাড়ি ঢুকতেই আচমকা শোনা যায় ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি। ধ্বনি শুনেই গাড়ি থামিয়ে মুখ্যমন্ত্রী নেমে পড়েন। তখনই ওই যুবকরা পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়া যুবকদের উদ্দেশ্য মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, “পালাচ্ছিস কেন? আয়, আয়, এদিকে আয়।”

এরপরেই পুলিশকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। অভিযোগ, তাঁকে দেখে কটূক্তি করেছে স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ উড়িয়ে বিজেপির বক্তব্য, তাদের কর্মীরা শুধুমাত্র ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিচ্ছিলেন রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে। এই ধ্বনি দেওয়া কি এ রাজ্যে নিষিদ্ধ? মুখ্যমন্ত্রীকে কটূক্তি করা বা অপমান করার কোনও অভিপ্রায় তাঁদের ছিল না।
এদিকে, এই ঘটনার জেরেই স্থানীয় বিজেপি নেতা জয় পান্ডার বাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল কর্মীরাই বিজেপি নেতার বাড়ি ভেঙ্গেছে। বিজেপি পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।