রেহাই পেলেন না কবি সুকান্ত! ত্রিপুরায় গুঁড়িয়ে দেওয়া হল তাঁর আবক্ষ মূর্তি

এসবিবি : ত্রিপুরার রাজনৈতিক পালাবদলের পর একের পর এক মূর্তি ভাঙা হয়েছে। যা প্রতিহিংসার রাজনীতির জ্বলন্ত উদাহরণ। দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকা বামেদের সরিয়ে গত বছর ত্রিপুরার মসনদ দখল করেছে বিজেপি। আর তারপর থেকেই প্রতিহিংসার রাজনীতির অভিযোগ উঠছে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে। যেখানে হানাহানি-মারামারি থেকে শুরু করে মূর্তি ধ্বংস সবই চলছে। যার মধ্যে মূর্তি ধ্বংস আজও অব্যাহত।

আরও পড়ুন –মমতার সামনে “জয় শ্রীরাম”, গ্রেফতার তিন

লেনিনের পর এবার এবার লোকসভা ভোটের মুখে কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের মূর্তি ভাঙা হল ত্রিপুরায়। এই মূর্তিটিও প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ত্রিপুরার বাম জমানায়। নক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে বিশালগড়ে। পরিবর্তনের ত্রিপুরায় একের পর পর এক মূর্তি ভাঙার খেলা চলছে যেন। এবার কবি সুকান্তের মূর্তি ভাঙা কাণ্ডে বামেদের অভিযোগের আঙুল রাজ্যের শাসক জোট বিজেপি-আইপিএফটি-এর দিকে। আর এই ঘটনার পরই প্রশ্ন উঠছে, “তরুণ” কবি সুকান্ত মার্কসবাদী ভাবধারায় বিশ্বাসী ছিলেন এবং প্রগতিশীল চেতনার অধিকারী ছিলেন বলেই কী বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায় ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো তাঁর মূর্তি?

আরও পড়ুন –হায়দরাবাদের হারে নাইটদের পালে হাওয়া

উল্লেখ্য, বিশালগড় ব্লকে প্রবেশের মুখে ছিল কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের মূর্তি। ওই অঞ্চলে চারটি মূর্তি বসানো হয়েছিল। সম্প্রতি ওই অঞ্চলে জাতীয় সড়কের বাইপাস তৈরির জন্য কাজ শুরু হয়েছিল। সুকান্তর মূর্তি তাই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তও হয়েছিল। কিন্তু তার আগেই ভেঙে দেওয়া হলো বাঙালি কবির মূর্তি।

আরও পড়ুন –কলকাতায় অমিত শাহের ‘মহা’ রোড-শো হবে 17 মে

এদিকে, সুকান্ত ভট্টাচার্যের মূর্তি ভাঙার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর থেকে নিন্দার ঝড় উঠেছে ত্রিপুরা পাশাপাশি গোটা দেশজুড়ে। ভাইরাল হওয়া ছবিতে সুকান্ত ভট্টাচার্যের আবক্ষ মূর্তির মাথা পড়ে রয়েছে মাটিতে। মূর্তির বাকি অংশ ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ত্রিপুরা সংস্কৃতি সমন্বয় কেন্দ্রের তরফে এমন ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তবে কারা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে তার ছবি অবশ্য ধরা পড়েনি।

আরও পড়ুন –মমতা কনভয় দেখে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি, চন্দ্রকোণায় গ্রেফতার 3 বিজেপি কর্মী