‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনিতে রাজি না হলেই কেন মারধর? প্রশ্ন অমর্ত্য সেনের

এসবিবি : বিজেপি’র বিরুদ্ধে সরব নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন৷ তাঁর নিশানায় গেরুয়া দলের ধ্বনি ‘জয় শ্রীরাম’৷ এই ধ্বনি দিতে রাজি না হলেই কেন মারধর করা হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন অমর্ত্য সেন৷ মনে করিয়ে দিলেন ভারতীয় সংবিধানে সমস্ত ধর্মাচরণের অধিকার৷

বিগত কয়েক বছরে দেশজুড়ে গো-রক্ষকদের তাণ্ডব দেখেছে দেশ৷ শিক্ষায় গৈরিকীকরণের অভিযোগ উঠেছে৷ হালে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক৷ এই ধ্বনি বলতে রাজি না হলেই জুটছে মার৷

এই ধ্বনি ঘিরে বাংলাতেও তরজা কম নয়৷ লোকসভায় বিজেপি মাথা চাড়া দিতেই বঙ্গের আকাশেও অবরহ শোনা যাচ্ছে ‘জয় শ্রীরাম’৷ ধর্মীর ভেদাভেদের উদ্দেশ্যেও এই ধ্বনি বলে সরব তৃণমূল৷

এই ধ্বনির উগ্র ব্যবহার নিয়ে সরব নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ৷ তিনি বলেন, ‘‘ধর্মীয় ভেদাভেদ থেকে হিংসা কেন? সংবিধানে সমস্ত ধর্মের স্থান আছে।’’ তাঁর সংযোজন, ‘‘নির্দেশ না মানলে মারধর করা হচ্ছে। ধর্মীয় স্লোগান বলতে বাধ্য করা হচ্ছে। কিন্তু আমাদের জানা প্রয়োজন, ভারতীয় সংবিধানে সমস্ত ধর্মাচরণের অধিকার দেওয়া হয়েছে। আমাদের প্রত্যেকের মানবাধিকার নিয়ে জানা উচিত।’

আরও পড়ুন-27 বছর পর 30 দিনের প্যারোলে মুক্ত রাজীব গান্ধীর হত্যাকারী নলিনী শ্রীহরণ