কৌতূহল মেটাতে গিয়ে প্রাণে বাঁচলেও বদলে গেল চেহারা, কেন জানেন ?

কার্টুন চরিত্র টম- এর কথা নিশ্চয়ই মনে আছে । এ যেন তারই প্রতিচ্ছবি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই পোষ্যের ছবি দেখলে এবং কাণ্ডকারখানা শুনলে আপনিও চমকে যেতে বাধ্য ।

গায়ের রং ছাড়া পর্দার টম এর সঙ্গে এই বিড়ালের খুব একটা অমিল নেই। বরং বলা যেতে পারে টমের কার্বন কপি। কৌতূহলের শেষ নেই। আর সেই কৌতূহল দেখাতে গিয়েই সে বিদ্যুতের সুইচ বোর্ডে মাথা ঢুকিয়ে নিমেষের মধ্যে যখন নিজেকে বের করে আনে, ততক্ষণে যা হবার হয়ে গেছে। ইলেকট্রিক শক খেয়ে ততক্ষণে তার লোমগুলো সজারুর মতো খাড়া আর কালো রঙে পরিণত হয়েছে । যে বাড়ির পোষ্যের সে তারাও তাকে চিনতে পারছে না । আর সে নিজে বুঝে উঠতে পারছে না কি হয়েছে।
আসলে ওই বাড়িতে ইলেকট্রিকের কাজ হচ্ছিল। যিনি কাজ করছিলেন সুইচ বোর্ড খোলা রেখে কিছু সময়ের জন্য অন্য কোথাও গিয়েছিলেন। সেই সময়টুকুর মধ্যে নিজের কৌতুহল মেটাতে মাথা ঢুকিয়ে দিয়ে এই বিড়ালটি বোঝার চেষ্টা করে কি হচ্ছে ওখানে। আর তখনই ইলেকট্রিক শক লেগে তার এই অবস্থা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া সেই ছবি দেখে অনেকেই কিন্তু বলছেন, প্রাণটা যে বেঁচে গেছে এটাই ওর ভাগ্য।