জঙ্গি তকমা, সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব লন্ডনের 10 বছরের শিখ কন্যা

বয়স মাত্র 10 বছর। আর পাঁচজন শিশুর মতো বাড়ির সামনের মাঠে খেলতে গিয়েছিল মুন্সিমার কাউর। কিন্তু, সেখানে উপস্থিত অন্যান্য শিশুরা তার সঙ্গে খেলতে অস্বীকার করে। শুধু তাই নয়, 10 বছরের ওই শিখ স্কুলছাত্রীকে জঙ্গি বলেও উল্লেখ করা হয়। এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে শিশুটি। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনের প্লামস্টেড মাঠে।

আরও পড়ুন-গলায় কাঁচি, অনেক টালবাহানার পর পিজিতে এসে সুস্থ কিশোর

এরপরই, এই ঘটনা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়ে ওঠে সে। সেখানে মুন্সিমার বলে, এই ঘটনার মুখোমুখি হয়ে আমি বুঝতে পেরেছি, কিছু মানুষের সংবেদনশীলতা এবং শিক্ষার অভাব রয়েছে। শিখ সম্প্রদায়ের মানুষ সকলকে ভালোবাসে। কিন্তু, আমাকে এই ঘটনার প্রতিবাদ করতে হবে। কারণ, সবাই এই ধরনের পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারে না। সে আরও বলে, এই ধরনের ঘটনা ঘটলে বাবা-মাকে জানাতে হবে। যারা এর শিকার হচ্ছে, তাদের একত্রিত হয়ে এই ধরনের নিগ্রহের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

অন্য একটি ঘটনায়, কৃপাণ নিয়ে যাত্রা করায় এক শিখ ব্যক্তিকে আটক করেছে লন্ডন পুলিশ। যদিও, লন্ডনে এটি বেআইনি নয়। তা সত্ত্বেও তাঁকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বার্মিংহামের বুল স্ট্রিটে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। এর তীব্র সমালোচনা করেছে একাধিক শিখ ধর্মাবলম্বী সংগঠন।

আরও পড়ুন-ক্ষুদিরামের আত্মবলিদান দিবস: ঝাড়গ্রামে পদযাত্রা করবেন শুভেন্দু