16 অগাস্ট, 1980 – ভুলতে পারেন না মজিদ

আর ঠিক তিন দিন পরেই সেই অভিশপ্ত দিন 39-এ পা দেবে। বর্তমান প্রজন্মের অনেকের কাছেই সে দুঃস্বপ্ন নিছকই একটা ঘটনা। কিন্তু মজিদ বাসকর ? এখনও শিউরে উঠছেন!

1980 সালের 16 আগস্ট। অভিশপ্ত সেই ডার্বিতে ঝরেছিল 16টি প্রাণ। 32 বছর পরে কলকাতায় ফিরে 39 বছর আগের সে দিনটি নিয়ে হঠাৎই উদাস মজিদ বাসকর। ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে মজিদকে যেন গ্রাস করল একরাশ দুঃস্বপ্ন। ইডেনে সে ম্যাচে নেমেছিলেন মজিদও। এর আগে কলকাতায় যে ক’দিন ছিলেন, কোনওদিন সে ম্যাচ নিয়ে একটি কথাও বলেননি। এই প্রথম 16 অগাস্টের সে অভিশপ্ত ম্যাচ নিয়ে মুখ খুললেন বাদশা।

মজিদের কথা অনুযায়ী, “মাঠে খেলার সময় প্রথমে বুঝতেই পারিনি গ্যালারিতে কী হচ্ছিল। পরে মাঠ থেকে ফিরে গোটা বিষয়টা জানতে পারি। আমি যেখানে থাকতাম, তার পাশেই একটি হাসপাতাল ছিল। সেখানে আহত এবং নিহতদের নিয়ে আসা হয়েছিল। খুব কষ্ট হয়েছিল। ম্যাচটায় দু’দলের কেউই ভালো খেলতে পারেননি। পরে আমাকে একজন বলেছিলেন, আপনারা মাঠে খেললেন আর কত মানুষ মারা গেলেন! তখন বারবার মনে হচ্ছিল, হে ঈশ্বর কী ঘটল এসব! আজও সেই দিনটার কথা মনে পড়লে শিউরে উঠি।”

ওই ঘটনা সম্পর্কে বলার আগে মজিদ নিজের সেরা গোল সম্পর্কে জানান, “অনেক গোলই তো করেছিলাম। তবে মহমেডানের বিরুদ্ধে রোভার্স কাপে ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়কে কাটিয়ে যে গোলটি করেছিলাম, সেটাই আমার সেরা গোল।” আর সেরা ম্যাচ ?

“দার্জিলিং গোল্ড কাপের ফাইনালে মোহনবাগান 1-0 গোলে লিড করছিল। 12 মিনিট যখন ম্যাচের বাকি সে সময়ে সুধীর কর্মকারকে আমি বলেছিলাম, তুমি শুধু গোল খাওয়া থেকে বাঁচাও। বাকিটা বুঝে নেব। তারপর আমরা দু’গোল দিয়েছিলাম মোহনবাগানকে। সেই দু’টি গোলের পিছনেই আমার অবদান ছিল। ওই ম্যাচটাই কলকাতায় আমার খেলা সেরা ম্যাচ।”

আরও পড়ুন-সেঞ্চুরি করার পর বিরাটের আগ্রাসী হওয়ার কারণ জানালেন ভুবি