হরেক রকমের রাখি দেদার বিকোচ্ছে বাজারে

1905 সালে বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনের সময়ে এই রাখিবন্ধন উৎসবের সূচনা করেছিলেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। মুসলমান ভেদাভেদ রুখতে এটাই ছিল তাঁর পদক্ষেপ। তারপর থেকে বছরের পর বছর এই রীতি চলে আসছে। রবি ঠাকুর মূলত এই উৎসবের মধ্য দিয়ে সৌভাতৃত্বের বার্তা দিয়েছিলেন। পরবর্তীকালে সেই ধার বয়ে নিয়ে যায় গোটা দেশবাসী।

এই রাখিবন্ধন ঘিরে বর্তমানে মেতে উঠেছে বাজারও। বিভিন্ন রাখি বিভিন্ন দামে দেদার বিকোচ্ছে। এক এক ধরনের রাখির দাম এক একরকমের। ভিড় জমাচ্ছেন বিভিন্ন বয়সী ক্রেতারা। খুদে থেকে প্রাপ্তবয়স্ক সকলের মধ্যেই রাখিবন্ধনের পালনের হিড়িক দেখা যায়। শহরের বিভিন্ন বাজারে বেশ ভিড়ও জমেছে রাখি কেনার জন্য। তাই সব মিলিয়ে আগামিকালের রাখিবন্ধন উৎসব প্রত্যেক বারের মতো জমে উঠবে, তা বলাই যায়।

আরও পড়ুন – রাখি বন্ধন নিয়ে অজানা তথ্য, যা আপনাকে জানতেই হবে