মজিদ ‘ম্যানিয়া’ ও অরিজিতের ‘ইস্টবেঙ্গল’ গানে জমজমাট নেতাজি ইন্ডোর

প্রেরণা গুঁই

‘একশো বছর ধরে মাঠ কাপাচ্ছে যে দল, লাল-হলুদের ঝড়ের নাম ইস্টবেঙ্গল’, এই গানে মেতে উঠেছিল নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম। শতবর্ষের ইস্টবেঙ্গলে ‘স্পোর্টস ডে’-র অনুষ্ঠান ছিল একেবারে জমজমাট। গত 1 আগস্ট যে সমারোহে পালিত করা হয়েছিল ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ অনুষ্ঠান, তারই ধারা বয়ে নিয়ে যায় এদিনের অনুষ্টান। আর মঙ্গলের এই শুভসন্ধ্যাকে আরও মোহময় করে তুলেছিলেন মীর। তাঁর নিঁখুত সঞ্চালনা যেন অনুষ্ঠানকে আরও বেশি জমাটি করে তুলেছিল।

অনুষ্ঠান শুরু হয় গার্গী ঘোষের গান দিয়ে। তারপর প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়। তারপর প্রকাশিত হয় রাজা চন্দ্র ও প্রসেনের লেখা ও অরিন্দমের সুরে ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ স্পেশাল গান। গানটি গেয়েছেন অরিজিৎ সিং। আজকের অনুষ্টান এই গানেই মোহিত হয়ে থাকে। তারপর দশক নির্বিশেষে দলের অধিনায়কদের সম্মানিত করা হয়। এমনকি এভির মাধ্যমে সেই সব দশকের স্মৃতি তুলে ধরাও হয়। তারপর ইমন চক্রবর্তীর গান লাল-হলুদ সমর্থকদেরও গলা মেলাতে বাধ্য করে।

অবশেষে আসে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। যেখানে ‘আশির বাদশা’-কে সম্মানিত করেন ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও ইস্টবেঙ্গলের সভাপতি প্রণব দাশগুপ্ত। কিন্তু ইনি তো মজিদ বাসকার। তাই নিজে একাই সম্মানিত হননি। নিজের প্রাণের ক্লাব ইস্টবেঙ্গলের সকল সদস্যদের জন্য সুদুর ইরান থেকে নিয়ে আসেন উপহার। যা পেয়ে আনন্দিত ক্লাব সদস্যরা। তারপর নচিকেতা চক্রবর্তীর গান দিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠান। তবে সব শেষে বলতেই হবে মজিদের উপস্থিতি ও অরিজিতের ‘ইস্টবেঙ্গল’ গানই এদিনের মূল আকর্ষণ ছিল।

ছবি- প্রকাশ পাইন